শিরোনাম
◈ বনশ্রীতে জুতার কারখানায় আগুন, নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ৪ ইউনিট ◈ যড়যন্ত্র না থাকলে পদ্মা সেতুতে বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়ন বন্ধ হলো কেন, প্রশ্ন হাইকোর্টের ◈ শিমুলিয়া ঘটে প্রায় ২০০ বাইক নিয়ে ছাড়লো ফেরি ◈ ‘সুপ্রিম কোর্টের ১২ বিচারপতি করোনায় আক্রান্ত’ ◈ প্রথম ১৫ ঘণ্টায় পদ্মা সেতুতে আয় দেড় কোটি টাকা ◈ বিশ্ব গণমাধ্যমে পদ্মা সেতু: জাতির গর্ব ও সামর্থ্যের প্রতীক  ◈ পদ্মা সেতুর জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছে এশিয়ার ৫ দেশ ◈ নাশকতাই ছিলো পটুয়াখালী ছাত্রদল কর্মী বাইজীদের উদ্দেশ্য: সিআইডি ◈ জাতিসংঘে র‌্যাপোটিয়ারের দাবি অর্থহীন: তথ্যমন্ত্রী ◈ খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে বাসভবনে দুই নাতনি

প্রকাশিত : ১৯ মে, ২০২১, ০৫:০৫ সকাল
আপডেট : ১৯ মে, ২০২১, ০৫:০৫ সকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

তালেবান সম্পর্কে আফগান নেতৃত্বের মন্তব্যে পাকিস্তানের আপত্তি

অনলাইন ডেস্ক : তালেবানের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে ইসলামাবাদের বিরুদ্ধে আফগানিস্তানের শীর্ষ নেতৃত্বের সাম্প্রতিক মন্তব্যের জের ধরে নিজেদের উদ্বেগ জানিয়েছে পাকিস্তান। সোমবার (১৭ মে) ইসলামাবাদে নিযুক্ত আফগান রাষ্ট্রদূতের কাছে এ উদ্বেগ জানায় দেশটি। বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে ইয়াহু নিউজ।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জাহিদ হাফিজ চৌধুরী বলেন, পাকিস্তান ইসলামাবাদে আফগান রাষ্ট্রদূতের কাছে দৃঢ়ভাবে তাদের উদ্বেগ জানিয়েছে। পাকিস্তান জোর দিয়েছে যে, ভিত্তিহীন অভিযোগের ফলে একে অপরের প্রতি আস্থা দুর্বল হয়ে যায় এবং দুই ভ্রাতৃত্বপূর্ণ দেশের পরিবেশকে বিকৃত করে দেয়। এবং আফগান শান্তি প্রক্রিয়া সহজীকরণে পাকিস্তান যে গঠনমূলক ভূমিকা পালন করে তা উপেক্ষা করে।

আগেরদিন জার্মান সাপ্তাহিক নিউজ ম্যাগাজিন ডের স্পিগেলকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি বলেন, শান্তির ব্যাপারে প্রাথমিকভাবে অঞ্চলিকভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, এবং আমি বিশ্বাস করি পুনর্বিবেচনার জন্য আমরা গুরুত্বপূর্ণ মুহুর্তে রয়েছি।

পাকিস্তানকে শান্তি আলোচনার বোর্ডে পাওয়ার বিষয়টি প্রথম এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এখন কেবল অল্প ভূমিকা পালন করছে। শান্তি বা বৈরিতা নিয়ে যত প্রশ্ন আছে সব এখন পাকিস্তানের হাতে। কারণ, পাকিস্তান একটি সাংগঠিত সমর্থন ব্যবস্থা পরিচালনা করে। তালিবানরা সেখান থেকে সরঞ্জাম বা রসদ সরবরাহ করে, তাদের আর্থিক ব্যবস্থা রয়েছে এবং নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়, যোগ করেন তিনি।

আফগান প্রেসিডেন্ট বলেন, তালেবানদের বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী সংস্থার নাম হলো- কোয়েটা শুরা, মীরামশাহ শুরা এবং পেশোয়ার শুরা। যা তাদের অবস্থান অনুযায়ী পাকিস্তানের শহরের নাম। এখানে রাষ্ট্রটির (পাকিস্তান) সঙ্গে তাদের গভীর সম্পর্ক রয়েছে। ইত্তেফাক

 

  • সর্বশেষ