প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মুনশি জাকির হোসেন: অসহিষ্ণুতার প্রতি সহিষ্ণুতা দেখানোর বিন্দুমাত্র সুযোগ নেই!

মুনশি জাকির হোসেন: হেফাজত, জামায়াত, শিবির, পলিটিক্যাল ইসলাম, তারা হলো অসহিষ্ণুতার এক বিশাল কারখানা, তাদের প্রতি সহিষ্ণুতা প্রদর্শন করা, তাদের গণতান্ত্রিক সুযোগ সুবিধা দেওয়া, তাদের বাকস্বাধীনতার অধিকার দেওয়া কোনোভাবেই সম্ভব না। হেফাজত, জামায়াত, শিবির, পলিটিক্যাল ইসলাম নামক মুদ্রার অপর পিঠ হলো বিজেপি, শিব সেনা, আরএসএস, বজরং। তারা সকলেই অশুভ চক্রের বাতিঘর। তারা হলো ফ্যাসিজমের এক নিকৃষ্টতম উদহারণ। এই অশুভ চক্র গণতান্ত্রিক সকল সুযোগ সুবিধা ভোগ করবে, বিপদে পড়লে নিজেদের মানবাধিকার রক্ষার কথা বলবে, আইনের শাসনের কথা বলবে, কিন্তু দিন শেষে নিজেরা ক্ষমতাপ্রাপ্ত হলে ভিন্নমতের বিরুদ্ধে কামান দাগাবে। বর্তমানে বাংলাদেশে হেফাজত হলো একটি অর্গানিক শয়তান এবং সন্ত্রাসীদের একটি চলমান মিসাইল। তাদের যেকোনো মূল্যে, যেকোনো ওপায়ে রাষ্ট্র সর্বশক্তি দিয়ে দমন করবে সেটিই প্রত্যাশিত। তাদের বারংবার সুযোগ দিলে তারা এক সময়ে সবকিছুই গ্রাস করবে।

হেফাজত, জামায়াত, শিবির, পলিটিক্যাল ইসলাম, তাদের সঙ্গে ইসলাম ধর্মের কোনো সংস্রব নেই। ইসলাম ধর্মে দাঙ্গা, ফ্যাসাদ, ঘৃণা, হিংসা, সহিংসতার বিরুদ্ধে বলা থাকলেও, পরমত ধৈর্য্যরে কথা বলা থাকলেও তারা এই ধারার উল্টো চলছে। তারা নিরীহ, এতিম, নাবালকদের উস্কানি দিয়ে, বিভ্রান্ত করে, কোরআন, হাদিসের অপব্যাখ্যা দিয়ে সকলের জন্য  সর্বনাশা পরিণাম ডেকে আনছে। তাদের এই অপকর্ম করার সুযোগ দেওয়া কাণ্ডজ্ঞানহীন কর্মকাণ্ড। একটি রাষ্ট্র, একটি সমাজ, একটি সরকার, একটি দেশ কখনো সেটি করতে পারে না এবং তারা করলে আমরা সেটি মেনে নিতে পারি না, এটিও একজন সচেতন নাগরিকের নৈতিক দায়িত্ব এবং কর্তব্য। ফেসবুক থেকে

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত