প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] রাত ১২টা পর্যন্ত দোকান-শপিংমল খোলা রাখতে চান ব্যবসায়ীরা, প্রধানমন্ত্রীর কাছে চিঠি

মনিরুল ইসলাম: [২] করোনা ভাইরাসে চলমান লকডাউনে ক্রেতা সাধারণ, দোকান মালিক ও কর্মচারীদের স্বার্থে সকাল ১০টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত দোকান ও শপিংমল খোলা রাখার অনুমতি চেয়েছে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি।

[৩] রোববার এ সংক্রান্ত এক চিঠিতে রাত ১২টা পর্যন্ত দোকান ও শপিংমল খোলা রাখার অনুমতি চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানিয়েছে দোকান মালিক সমিতি।

[৪] অন্যদিকে, এ সংক্রান্ত একটি চিঠি মন্ত্রিপরিষদের সিনিয়র সচিব ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব বরাবর পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

[৫] চিঠিতে বলা হয়, চলমান লকডাউনে সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মার্কেট ও দোকান খোলা থাকলেও ক্রেতা সাধারণ বিকেল ৩টা থেকে ৫টার মধ্যে কেনাকাটা শেষ করে বাসায় ইফতার করে। কারণ সমস্ত হোটেল-রেস্তোরাঁ বন্ধ থাকায় বাইরে ইফতার করার কোনো সুযোগ থাকে না। অন্যদিকে বেসরকারি অফিস ৪টায় ছুটি হয়। তারা মার্কেটে গিয়ে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত কেনাকাটা করে। এতে দেখা যায় এ সময় মার্কেটে ক্রেতাদের চাপ বাড়ে ও প্রচণ্ড ভিড় হয়। বাসায় গিয়ে ইফতার করতে সন্ধ্যা ৭টা বেজে যায়। মার্কেট ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকলেও এক ঘণ্টার জন্য কেউ মার্কেটে আসেন না। ফলে এ সময় মার্কেটে ক্রেতা শূন্য হয়ে পড়ে। সকাল ১০টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত খোলা রাখলে বিকেল ৩টা থেকে ৫টা পর্যন্ত ক্রেতা সাধারণের মার্কেটে যে ভিড় থাকে সেটা কমে যাবে ও ক্রেতা সাধারণ সময় নিয়ে কেনাকাটা করার সুযোগ পাবে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত