প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাহুবলে ২২বস্তা সরকারী প্রনোদণার বীজ জব্দ , ভ্রাম্যমাণ আদালতের ২০ হাজার টাকা অর্থদন্ড

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলায় সরকারী ধান বীজ অবৈধপন্থায় বিক্রি করার উদ্দেশ্যে মজুত করা ২২ বস্তুা বীজ ধান জব্দ করেছেন উপজেলা এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী কর্মকর্তা স্নিগ্ধা তালুকদার।

উপজেলা প্রসাশন সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বেলা দুইটায় দিকে বাহুবল উপজেলা এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী কর্মকর্তা স্নিগ্ধা তালুকদার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাহুবল বাজার এলাকায় এস আলম ট্রেডার্স এ অভিযান চালিয়ে সেখান থেকে সরকারী ২২ বস্তুা আউশ প্রনোদণার ধান বীজ জব্দ করেন।

পরে ঘটনাস্থলেই উপজেলা এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী কর্মকর্তা স্নিগ্ধা তালুকদার ভ্র্যাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন এবং সরকারী ধান বীজ রাখার অপরাধে অভিযুক্ত এস আলম ট্রেডার্সের এর স্বাধিকারী মোঃ আলম মিয়াকে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে দন্ডিত করেন এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের অপরাধের সাথে সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেলে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে সর্তকৃৃরণ আদেশ দেন বিজ্ঞ আদালত।

এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতকে সার্বিক সহযোগিতা করেন উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ আব্দুল আউয়াল।

উক্ত অভিযান কালে উপজেলা এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী কর্মকর্তা স্নিগ্ধা তালুকদার বাজারের সকল ব্যবসায়ী ও উপস্থিত সকলের সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,

সরকারী আউশ প্রনোদণার ধান বীজ যা বিক্রয়যোগ্য নয়, ভবিষ্যতে কেউ এমন অপরাধে না জড়ানোর জন্য সর্তক করে দেন তিনি।
উল্লেখ্য যে,গত ৩-৪ দিন যাবত উপজেলা কৃষি অফিসের মাধ্যমে আউশ মৌসুমের প্রনোদণার হিসেবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওয়াজেদ এর নির্দেশনায় সারাদেশের ন্যায় সরকারী সার ও বীজ বিতরণ করা শুরু হয়, গরীব অসহায়দের মাঝে প্রনোদণার সরকারি সার ও বীজ বিতরণের করার জন্য।

কিন্তু কিছু অসাধু লোকের চামচামির করে কারণে প্রকৃত কৃষকরা সরকারী সার ও বীজ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে এমন খবর পাওয়া যায়। পরে স্থানীয় সংবাদকর্মীরা এমন সংবাদ প্রকাশিত করলে বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনের নজরে আসে। এর পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার দুপুরে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ ব্যাপারে, বাহুবল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা স্নিগ্ধা তালুকদার বলেন, এসব অবৈধ কর্মকান্ডের যে কোন ধরনের তথ্য আমাকে দিন, তথ্য প্রদানকারীর নাম ঠিকানা গোপন থাকবে।

তিনি আরো বলেন, সাধারণ মানুষের সাথে ধোঁকাবাজি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওয়াজেদ এর সপ্ন পূরনের উদ্দেশ্যে যে সকল কাজ করতে হবে তার জন্য অবৈধভাবে এ সকল কর্মকান্ডের সাথে যারাই জড়িত সাবধান হয়ে যান, তা না হলে জড়িত থাকার অভিযোগে যে কেউ হোক প্রমাণিত হলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কোন ধরনের ছাড় কাউকে দেওয়া হবে না। এছাড়া আজকের বিষয়ে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান। সম্পাদনা: সাদেক আলী

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত