প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাবুনগরী-মামুনুলের কুশপুতুলে আগুন দিলো বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ

ডেস্ক রিপোর্ট : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির জুনায়েদ বাবুনগরীর ও যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের কুশপুতুল দাহ করেছে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।  বুধবার (৩১ মার্চ) বিকেলে সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে তাদের কুশপুতুল দাহ করা হয়।

মঞ্চের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠানকে বিতর্কিত করার জন্য একাত্তর সালে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর ন্যায় সম্প্রতি হেফাজতে ইসলাম সমগ্র বাংলাদেশে আন্দোলনের নামে ব্যাপক সহিংসতা ও তাণ্ডব চালিয়েছে যা শান্তির ধর্ম ইসলামের নীতি ও আদর্শ পরিপন্থি।

তিনি বলেন, দেশের বিভিন্ন জেলায় যানবাহনে অগ্নিসংযোগ, সাংবাদিকদের ওপর হামলা, বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ভাঙচুর, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ অফিস ভাঙচুর, আওয়ামী লীগ অফিস ভাঙচুর, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ওপর হামলা, মানুষের বাড়িঘর ভাঙচুর, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপর হামলা ইত্যাদি কার্যক্রমই প্রমাণ করে হেফাজত কখনওই ইসলামের আদর্শে বিশ্বাস করে না। এরা প্রকৃতপক্ষে এজিদের উত্তরসূরি।

সাধারণ সম্পাদক আল মামুন বলেন, বাবুনগরী-মামুনুলরা কখনওই মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করেন না। এরা একাত্তরের পরাজিত অপশক্তির দোসর। এরা বাংলাদেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রা থামিয়ে দিতে চায়। এরা এখন পর্যন্ত বাংলাদেশকে মনে-প্রাণে মেনে নিতে পারেনি। দেশের কওমী মাদরাসাগুলোতে জাতীয় পতাকা ওড়ানো হয় না, জাতীয় সংগীত বাজানো হয় না, শহীদ মিনার নির্মাণ করা হয়নি। কওমী মাদরাসাগুলোকে এরা মিনি পাকিস্তান বানানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। মাদরাসাগুলোকে মূলধারা শিক্ষা ব্যবস্থায় ফিরিয়ে আনতে হবে।

বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুলের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আল মামুনের সঞ্চালনায় এতে আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সনেট মাহমুদ, কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি শাহীন মাতবর প্রমুখ।
সূত্র- ডেইলি ক্যাম্পাস

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত