প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] হাটহাজারীতে বাণিজ্যিক ভাবে ফুল চাষে সম্ভাবনা

মোহাম্মদ হোসেন: [২] নীল, বেগুনী, সাদা, হলুদসহ নানা রঙের ফুলে সুশোভিত হাটহাজারী কৃষি গবেষণা কেন্দ্রে। ফুল নিয়ে গবেষনায় দেখা যায় এই এলাকাতে ফুল চাষের ভালো ফলনের সম্ভাবনা দেখা দিলেও এ চাষে আগ্রহটা অনেকটা কমে গেছে। চাষীরা বাণিজ্যিক ভাবে জমিতে ফুল চাষ করলে লাভবান হওয়ার সম্ভাবনা থাকলে অনেকেই ক্ষতি হওয়ার আশংকায় ফুল চাষে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে।

[৩] উপজেলা ও পৌর সভার বিভিন্ন স্থানে কয়েকজন চাষী’র সাথে কথা হলে তারা বলেন, ফসলের বদলে জমিতে বাণিজ্যিকভাবে ফুল চাষ করেছেন লাভবান হয়েছেন ভালো,তবে নানা দুর্যোগ কারনে তারা ফুল চাষ করতে ক্ষতি হওয়ার আশংকায় ভয় করেন। তবে পরিশ্রম করে চাষ করতে পারলে ফুল চাষে যেমন লাভবান হওয়া যায়। ফুল চাষীদের মধ্যে মানসিকতা পরিবর্তন আনতে হবে।

[৪] চট্টগ্রামের হাটহাজারী আঞ্চলিক কৃষি গবেষণাগারের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড.মোহাম্মদ মোক্তাদির আলম বলেন, ফুল চাষে লাভবান হতে পারবেন তবে তাকে ফুলের মত মন নিয়ে এ চাষে আগ্রহ থাকতে হবে। দেশে ফুলের প্রচুর চাহিদা রয়েছে তবে ফুল চাষ তুলনা মুলক ভাবে অনেকটা কম। এই এলাকায় আগের চেয়েও অনেকটা কমে গেছে ফুল চাষ। বাণিজ্যিক ভাবে ফুল চাষে আগ্রহ বাড়াতে হবে।
[৫] তা ছাড়া বাণিজ্যিক ভাবে ফুল চষে না থাকায় দেশের বাজার গুলোতে কাচা ফুলের চেয়ে বাজার দখল করে আছেন প্লাষ্টিকের ফুল নিয়ে। দোকানিরা কাচা ফুলের পাশাপাশি প্লাস্টিক ফুল দিয়ে দোকান সাজিয়ে রাখেন। এখন প্লাস্টিক ফুলের দখলে চলে যাচ্ছে ফুলের বাজার। এতে পরিবেশের উপর ব্যাপক ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে।

[৬] শীত মৌসুমে এই চাষে যেমন ফলন ভালো হয়ে থাকেন তেমনি বাজারে চাহিদাও বেশি। দেশে বর্তমানে ইন্ডিয়ান ফুল দেখা যায়। দেশে ফুল চাষ কম থাকায় কাচা ফুলের বাজার দখল করছে ভারতীয় ফুল চাষীরা। দেশে গতানুগতিক ফসল চাষের দৃষ্টিভঙ্গী পরিবর্তন করে ফুল চাষের মাধ্যমে অর্থনৈতিক ভাবে লাভবান হতে শুরু করা সম্ভাবনা রয়েছে। মাটি ও আবহাওয়া উপযোগী ফুল চাষ করতে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করলে হয়তো এই এলাকায় ফুল চাষে আগ্রহ বাড়বে।

[৭] পৌর সদরের ফুল চাষী নুরুল আবছার বলেন, আমি দীর্ঘ দিন ধরে বাণিজ্যিক ভাবে ফুল চাষ করে আসছি। জমিতে উৎপাদিত ফুল বাজারে বিক্রি করে লাভবান হয়েছি। বিয়ে সাদি ছাড়াও ফালগুন ও ভালো বাসা দিবসে বেশি ভাগ ফুল বিক্রি হয়। বাজারে সব সময়ই ফুলের দাম বেশি থাকায় এরইমধ্যে কৃষকরা ফুল বিক্রি করে অন্যান্য ফসলের চেয়ে বেশি লাভবান হতে শুরু করেছেন। মূলত অন্যান্য ফসল চাষের পাশাপাশি কৃষকদের মানসিকতা পরিবর্তন করে স্বল্প সময়ে অর্থকরী ফসল চাষে আগ্রহী করতেই বাণিজ্যিকভাবে ফুল চাষে আগ্রহী করে তোলার সম্ভাবনা রয়েছে। কৃষকরা যাতে এসব অর্থকরী ফসল চাষ করে স্বাবলম্বী হতে পারে। সম্পাদনা: সাদেক আলী

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত