প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিশ্বজুড়ে অনলাইনে দেদারসে বিক্রি হচ্ছে নকল ভ্যাকসিন, খোলা বাজারে ভ্যাকসিন ছাড়েনি কোনও কোম্পানিই

আসিফুজ্জামান পৃথিল: [২] অনলাইনে ওষুধ বিক্রি করে এমন একটি ওয়েবসাইট বলছে, তাদের কাছে চাইলেই ফাইজার-বায়োএনটেক ও মডার্নার তৈরি কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিতে পারবেন গ্রাহরা। এ ছাড়াও তারা ১ ডজন ওষুধ বিক্রি করছে এই রোগটি থেকে উপশম পাওয়া যাবে দাবি করে। কিন্তু এর কোনওটাই প্রমাণিত চিকিৎসা নেই। ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল

[৩] আরেকটি ওয়েবসাইট প্রতি ডোজ ফাইজারের ভ্যাকসিনবিক্রি করছে ১ হাজার ৫৭৬ ডলার ৫ সেন্টসে ! যা আসল দামের চেয়ে কয়েকশ গুন বেশি। সবচেয়ে বেশি এ ধরনের বিজ্ঞাপন দেখা যাচ্ছে ডার্ক ওয়েবে। নকল ওষুধ বিক্রেতারা আসল কোম্পানির মনোগ্রাম ও স্লিপ নকল করে এগুলো বিক্রি করছেন।

[৪] সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের ম্যারিল্যান্ড অ্যাটর্নির কার্যালয়, দুটি ডোমেইন বন্ধ করে দেয়। এই ডোমেইনগুলো বিভিন্ন বায়োটেকনলজি কোম্পানির ভুয়া নাম ব্যবহার করছিলো।

[৫] বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এভাবে নকল ভ্যাকসিন বিক্রি হওয়াটা ভয়াবহ ঝুঁকিপূর্ণ। এগুলো ব্যবহারে শরীরে নানান বিরুপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। এমনকি মৃত্যু হওয়াটাও বিচিত্র নয়। তাই নিজে নিজে ভ্যাকসিন কিনে ব্যবহার না করার পরামর্শ দিচ্ছেন তারা।

[৬] এখন পর্যন্ত কোম্পানিগুলো শুধু বিভিন্ন সরকার ও সংস্থার কাছেই ভ্যাকসিন বিক্রি করেছে। খোলাবাজারে ভ্যাকসিন বিক্রির এখন পর্যন্ত কোনও রেকর্ড নেই। সরকারগুলোও ভ্যাকসিন প্রদান করছে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত