প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত: কাঠগড়ায় অ্যামাজন, বিতর্কে অভিনেত্রী

বিবিসি বাংলা : হিন্দু সম্প্রদায়ের দেবতা শিবকে অপমান করে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের আলাদা দুটি ঘটনায় ভারতে অভিযুক্ত হয়েছেন ওয়েব সিরিজ ‘তাণ্ডবের’ নির্মাতারা এবং কলকাতার অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ।

বিবিসি বাংলার এক প্রতিবেদনে জানা গেছে, পরিচালক আলি আব্বাস জাফর অ্যামাজন প্রাইমের জন্য ‘তাণ্ডব’ নামে যে ওয়েব সিরিজটি বানিয়েছেন সেখানে হিন্দু দেবদেবীদের পোশাকে অভিনেতারা কদর্য ভাষায় কথাবার্তা বলেছেন- এ অভিযোগে লখনৌর হজরতগঞ্জ পুলিশ স্টেশনে একটি এফআইআর বা প্রাথমিক অভিযোগ দায়ের করা হয়।

উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের মিডিয়া উপদেষ্টা শলভ মণি ত্রিপাঠী সেই এফআইআরের একটি প্রতিলিপি টুইট করে জানিয়েছেন, তাণ্ডবের অভিযুক্ত পরিচালক ও অভিনেতাদের গ্রেপ্তার করতে রাজ্য পুলিশ মুম্বাইয়ের পথে রওনা হয়ে গেছে।

এদিকে পশ্চিমবঙ্গে বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা তথাগত রায় ভিন্ন একটি এফআইআরে অভিযোগ এনেছেন, কলকাতার অভিনেত্রী সায়নী ঘোষের একটি টুইট একজন ‘একনিষ্ঠ শিবভক্ত’ হিসেবে তার ধর্মীয় বিশ্বাসে চরম আঘাত হেনেছে।

২০১৫ সালে করা অভিনেত্রী সায়নী ঘোষের ওই টুইটে দেখা যায় একটি শিবলিঙ্গের ছবি, যাতে কনডমম পরাচ্ছেন এক নারী। ছবিটি থেকে বোঝা যাচ্ছে, ওই নারীকে এইডস সচেতনতার বিজ্ঞাপনের ম্যাসকট ‘বুলাদি’ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

গ্রাফিকের ভিতরে লেখা, ‘বুলাদির শিবরাত্রি’। পোস্টের ক্যাপশনে ছিল, ‘এর থেকে বেশি কার্যকরী হতে পারেন না ঈশ্বর।’

এদিকে পুরনো সেই টুইট নিয়ে বিতর্ক শুরু হওয়ার পর সায়নী ঘোষ দাবি করেছেন, তার অজান্তেই এই ‘কদর্য’ টুইটটি তার অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করা হয়েছিল এবং তিনি জানতে পারামাত্র সেটি ডিলিট করে দিয়েছিলেন।

ভারতে অ্যামাজন প্রাইমের নতুন ওয়েব সিরিজ তাণ্ডবের নির্মাতা ও অভিনেতাদের বিরুদ্ধে এখন যে কোনও মুহূর্তে ফৌজদারি ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে।

এ সিরিজের মাধ্যমে হিন্দুদের ধর্মীয় ভাবাবেগকে আহত করা হয়েছে, এ অভিযোগ মুম্বাই পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন মহারাষ্ট্রের বিজেপি নেতা ও বিধায়ক রাম কদম।

তার সেই পদক্ষেপের পর কেন্দ্রীয় তথ্য মন্ত্রণালয় অ্যামাজন প্রাইমের কাছে জবাবদিহিও তলব করে।

এরপর লখনৌতে হজরতগঞ্জ পুলিশ থানায় কর্মরত একজন সাব-ইনস্পেক্টর ‘তাণ্ডবের’ বিরুদ্ধে এফআইআর করেন সেই থানাতেই, এদিন সকালে যার প্রতিলিপি টুইট করেন মুখ্যমন্ত্রী আদিত্যনাথের একজন ঘনিষ্ঠ সহযোগী।

কয়েক ঘণ্টা পরেই সোমবার (১৮ জানুয়ারি) আর একটি টুইটে তিনি অভিযুক্ত হিসেবে তাণ্ডবের পরিচালক আলি আব্বাস জাফর, প্রযোজক হিমাংশু মেহরা, লেখক গৌরব সোলাঙ্কি ও অভিনেতা সাইফ আলি খানের নাম করেন।

অভিযুক্তদের গ্রেফতার করতে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের একটি দল সড়কপথে মুম্বাইয়ের উদ্দেশে রওনা হয়েছে বলেও জানা গেছে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত