প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিজয় সুসংহত করার প্রধান অন্তরায় সাম্প্রদায়িক অপশক্তি: ওবায়দুল কাদের

সমীরণ রায় ও মহসীন কবির: [২] আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে পরাজিত করে বিজয়কে সুসংহত করাই হবে প্রধান লক্ষ্য। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে ঈর্ষণীয় উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। এই বিজয়ের সুফলকে নস্যাৎ করতে সাম্প্রদায়িক শত্রুরা এখনও তৎপর। কাজেই বিজয়কে সুসংহত করতে হলে এই অপশক্তিকে পরাজিত করতে হবে।

[৩] তিনি বলেন, আমাদের বিজয়ের ৫০ বছর পর একটা কথা মনে পড়ে, যে আমরা কি বিজয়কে সুসংহত করতে পেরেছি? আজকে বিজয়ী হওয়ার পর, বঙ্গবন্ধুর নৃসংশ হত্যাকাণ্ডের পর বদলে যাওয়া বাংলাদেশের কারিগর বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। কিন্তুবিজয়ের শত্রুরা এখনো তৎপর, এখনো তারা ষড়যন্ত্র করছে। কাজেই শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সাম্প্রদায়িক ও অগণতান্ত্রিক অপশক্তিকে পরাজিত করে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণ করে আমাদের বিজয়কে সুসংহত করবো। এটাই আজকের প্রত্যাশা। আর বঙ্গবন্ধুর অনুপস্থিতিতে আজকের এই দিন আমাদের কাছে অসম্পূর্ণ।

[৪] সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর অনুপস্থিতিতে বিজয় ছিল অসম্পূর্ণ। চারদিকে ছিল শূন্যতার হাহাকার। এই দিনে বঙ্গবন্ধুর প্রত্যাবর্তনের মাধ্যমে বিজয় পূর্ণতা পায়। বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়া ঈর্ষণীয়। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তি সংগ্রামে অনেক দূর উন্নয়নের মহাসড়ক ধরে এগিয়ে গেছি।

[৫] রোববার বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরে আওয়ামী লীগের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

[৬] এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, আব্দুর রাজ্জাক, অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, শাজাহান খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ, আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম প্রমুখ।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত