প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চট্টগ্রামের আকবরশাহ এলাকায় নুরু ডাকাতের ১২ সহযোগী মাদকসহ গ্রেপ্তার

রাজু চৌধুরী: অস্ত্র এবং ইয়াবা উদ্ধার সহ ডাকাত নুরুর ১২ জন সহযোগীকে গ্রেপ্তার করেছে চট্টগ্রাম আকবরশাহ থানা ও ডিবি (পশ্চিম-বন্দর) বিভাগ।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) ভোর থেকে সকাল পর্যন্ত মোঃ ফারুক উল হক, উপ-পুলিশ কমিশনার(পশ্চিম), মোঃ মঞ্জুর মোরশেদ, উপ-পুলিশ কমিশনার(ডিবি-পশ্চিম) এর সার্বিক নির্দেশনায়, এ.এ.এম হুমায়ুন কবির, পিপিএম, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার(পশ্চিম) এর নেতৃত্বে মোঃ আরিফ হোসেন, সহকারী পুলিশ কমিশনার(পাহাড়তলী জোন), মোহাম্মদ জহির হোসেন পিপিএম-সেবা, অফিসার ইনচার্জ, আকবরশাহ্ থানা, সিএমপি, চট্টগ্রাম, মোঃ কামরুজ্জামান, পুলিশ পরিদর্শক(ডিবি-পশ্চিম), মোহাম্মদ আমিনুল হক, পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত), আকবরশাহ্ থানা, সিএমপি, চট্টগ্রাম এবং থানার অন্যান্য অফিসার ও ফোর্স এবং ডিবি (বন্দর-পশ্চিম) এর অফিসার ফোর্সসহ আকবরশাহ্ থানাধীন নাছিয়া ঘোনা ১নং ঝিল এলাকায় চট্টগ্রাম মহানগর এর তালিকা ভুক্ত সন্ত্রাসী, অবৈধ পাহাড় দখলকারী, অস্ত্রধারী মাদক ব্যবসায়ী ও একাধিক গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামী মোঃ নূরে আলম প্রঃ নুরু(৪০)’কে গ্রেপ্তারের উদ্দেশ্যে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযান পরিচালনাকালে মোঃ নূরে আলম প্রঃ নুরু পাহাড়ী ও তার সহযোগী পুলিশের উপর আক্রমণ করে। পুলিশ জানায়, তাঁকে গ্রেপ্তার ও আক্রমণ প্রতিহত করার জন্য পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণের সময় নুরু পালিয়ে যায় । মোঃ নূরে আলম নুরুর অন্যতম সহযোগী বিউটি আক্তার(২৭) কে ১১৫০ পিস ইয়াবা সহ এবং অপর ১১ জনকে কিরিচ, ছোরা ও চাপাতিসহ গ্রেপ্তার করা হয়। তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরাও একই রকম অপকর্মে লিপ্ত। মোঃ নূরে আলম প্রকাশ নুরু পাহাড়ী এলাকায় চাঁদাবাজী, অবৈধভাবে পাহাড় কাটা, মাদক ব্যবসা করে অর্থ উপার্জন করে বিভিন্ন রকম অপরাধ মূলক কর্মকান্ড পরিচালনা করে থাকে।পলাতক নুরুর বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম মহানগরের বিভিন্ন থানায় ২৪টি মামলা রয়েছে। আটককৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে ও জানানো হয়।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত