প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুবাই বিস্ময় উদ্যান: সৌন্দর্যের লীলাক্ষেত্র

হারুন আল নাসিফ, ফেসবুক থেকে, দুবাই মিরাকল গার্ডেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইতে অবস্থিত একটি অপরূপ, নয়নাভিরাম টপিয়ারি উদ্যান ও ফুলবাগান। আধুনিক উদ্যানকলার বিস্ময় মনোমুগ্ধকর এ বাগানের সৌন্দর্য সত্যিকার অর্থেই অনির্বচনীয়। অভিধান ঘেঁটে চমৎকার সব বিশেষণ জড়ো করে এর অপরূপ সৌন্দর্য বর্ণনা করার চেষ্টা করা যেতে পারে কিন্তু তা শেষপর্যন্ত অসম্পূর্ণই থেকে যাবে। এর সৌন্দর্য শুধু অবাক হয়ে দেখার আর বিমোহিত হয়ে উপলব্ধি করার।

২০১৩ সালের বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে এটি উদ্বোধন করা হয়। পুরো উদ্যানটি ২০ লাখ বর্গফুট জায়গাজুড়ে অবস্থিত। এটি বিশ্বের বৃহত্তম প্রাকৃতিক ফুলের বাগান। এতে রয়েছে ১২০ প্রজাতির পনের কোটি ফুল এবং ২৫ কোটি গাছপালা ও লতাগুল্ম।

এ প্রকল্পের প্রথম ধাপের কাজ শুরু হয় ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে। প্রথম পর্যায়ের উন্নয়ন কাজে সময় লেগেছিল দুই মাস। কাজ করে ৪০০ জন শ্রমিক। প্রকল্পের দ্বিতীয় ধাপের কাজ শুরু হয় ২০১৩ সালের জুনের মাঝামাঝি সময়ে। সম্পন্ন হয় অক্টোবরে।

বাগানটির রক্ষণাবেক্ষণ প্রতিদিন গড়ে ৭ লাখ, ৫৭ হাজার, ৮২ লিটার পানি লাগে। প্রতিদিন ড্রিপ সেচ পদ্ধতির মাধ্যমে পরিশ্রুত বর্জ্য জল পুনরায় ব্যবহার করা হয়। দুবাই পৌরসভার ব্যবহৃত পানি সরাসরি বাগানে প্রেরণ করা হয়। বাগানে ব্যবহারের জন্য এ পানিকে ফিল্টার করে উন্নত মানের স্বচ্ছ পানিতে রূপান্তর করা হয়। বাগানে পানি দেওয়া হয় কেবল রাতে। ক্লোজিং আওয়ারে।
দুবাই বিস্ময় উদ্যানের আরেকটি আকর্ষণ হলো এর আলাদা অংশ মনোরম দুবাই বাটারফ্লাই গার্ডেন। ২০১৫ সালে দুবাই মিরাকল গার্ডেন দুবাই প্রজাপতি উদ্যান চালু করে। এটি বিশ্বের বৃহত্তম এবং এই অঞ্চলের প্রথম অভ্যন্তরীণ প্রজাপতি উদ্যান। এটি ২৬ প্রজাতির ১৫ হাজার প্রজাপতির অভয়ারণ্য।

দুবাই মিরাকল গার্ডেন ও ওয়াল্ট ডিজনি সংস্থার মধ্যে লাইসেন্সিং চুক্তির অংশ হিসাবে ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে এ গার্ডেনে মিকি মাউসের একটি সুউচ্চ টপিয়ারি উন্মোচন করা হয়। বছরের শেষ দিকে এখানে মিনি মাউস, বোকা, প্লুটো, ডেইজি ডাক, ডোনাল্ড ডাক এবং হিউই, দেউই ও লুয়ির ফুলের কাঠামো বা টপিয়ারি স্থাপন করা হয়।

দুবাই মিরাকল গার্ডেন এ পর্যন্ত ৩টি গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করেছে। এক. ২০১৩-তে দুবাই মিরাকল গার্ডেনকে বিশ্বের বৃহত্তম উলম্ব উদ্যান ঘোষণা করা হয়। দুই. গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস বাগানে স্থাপিত এয়ারবাস এ৩৮০ ফুলের কাঠামোকে বিশ্বের বৃহত্তম ফুলের কাঠামো হিসাবে তালিকাভুক্ত করেছে। তিন. মিকি মাউসের প্রায় ৩৫ টন ওজনের ১৮ মিটার (৫৯ ফুট) উঁচু টপিয়ারি ভাস্কর্যটি বিশ্বের উচ্চতম টপিয়ারি ভাস্কর্য স্বীকৃতি পেয়েছে।

ইমরান হাশমি ও বিদ্যা বালান অভিনীত বলিউড চলচ্চিত্র হামারি ইয়াদুরি কাহানি’র একটি দৃশ্যের চিত্রায়ন হয়েছে এ গার্ডেনে।
দুবাই মিরাকল গার্ডেন বছরের অক্টোবর মাস থেকে এপ্রিল পর্যন্ত খোলা থাকে। মে থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত উচ্চ তাপমাত্রার কারণে বন্ধ থাকে। গার্ডেন রবি থেকে বৃহস্পতিবার প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা এবং ছুটির দিনে (শুক্র ও শনিবার) সকাল ৯টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত খোলা থাকে। প্রবেশ মূল্য ১২ বছরের বেশি বয়সীদের জন্য ৫৫ দিরহাম এবং ১২ বছর বা তার চেয়ে কম বয়সীদের শিশুদের জন্য ৪০ দিরহাম। তিন বছরের কম বয়সী শিশুদের জন্য ফ্রি।

ছবি দিয়ে বা লিখে এর সৌন্দর্য বর্ণনা করা সম্ভব নয়। তবু কিছুটা আঁচ করার সুবিধার্থে নমুনা হিসেবে কয়েকটা ছবি সংযুক্ত করলাম।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত