প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মাদক মামলায় আটক ব্যক্তিরা জামিনে মুক্তি পেয়ে পুনরায় মাদক ব্যবসা করতে যেন না পারে সে ব্যবস্থা নিতে সুপারিশ

মনিরুল ইসলাম : [২] একাদশ জাতীয় সংসদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ১৪তম বৈঠকে এই সুপারিশ করা হয়েছে।

[৩] জানা যায়, মাদকের মামলায় অভিযুক্তদের হাজিরা বন্ধ রেখে বিচার কাজ চালানোর প্রস্তাব দিয়েছে সংসদীয় কমিটি। এ বিষয়ে আইন মন্ত্রণালয় ও উচ্চ আদালতের পরামর্শ নিতে বলছে কমিটি।

[৪] মাদক ব্যবসায়ীরা জামিন পেয়ে আবারও মাদক ব্যবসা শুরু করে। এ অবস্থার উত্তরণে তাদের জামিন না দেওয়ার বিষয় নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়। পরে মাদকের মামলায় গ্রেফতার ব্যক্তি জামিনে বেরিয়ে ফের যাতে মাদক ব্যবসায় জড়িত হতে না পারে, সে বিষয়ে কী করা যায়, তার জন্য আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত নেওয়ার কথা বলেছে কমিটি।

[৫] বৈঠক শেষে কমিটির সদস্য সাবেক আইজিপি নূর মেহাম্মদ বলেন, জামিন পাওয়া সকলের আইনি অধিকার। কারও জামিন বন্ধ করতে আমরা বলতে পারি না। তবে জামিনে মুক্ত হয়ে অনেকে আবারও মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ে। এটা কীভাবে বন্ধ করা যেতে পারে, তার উপায় খুঁজতে বলেছি।

[৬] বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু বলেন, জামিন দিলে তো কিছু করার নেই। এক্ষেত্রে তদন্ত সঠিকভাবে করে, যে অপরাধ সেই অনুযায়ী অভিযোগ দাখিল হয়, সাক্ষী প্রমাণগুলো যাতে যথাযথ হয় এবং দ্রুত যাতে বিচার শেষ হয়, সেই বিষয়ে কমিটির বৈঠকে আলোচনা হয়েছে।

[৭] সভাপতি বলেন, মাদকের মামলায় কারাবন্দি আসামি, তাদের বার বার কোর্টে হাজিরা নিরুৎসাহিত করা হয়েছে। কোর্টে হাজিরা দিতে গেলে আত্মীয়-স্বজন বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে সাক্ষাৎ হয়, সেখানে মাদকের লেনদেনের সুযোগ থাকে। এটা যাতে না হয় সেই জন্য হাজিরা বন্ধ রেখে বিচার কাজ পরিচালনায় কমিটি প্রস্তাব দিয়েছে। এটি সম্ভব কিনা তা আইন মন্ত্রণালয় ও উচ্চতর আদালতের পরামর্শ নিতে বলা হয়েছে।

[৮] ডোপ টেস্ট বিধিমালা চূড়ান্ত হওয়ার পথে জানিয়ে কমিটির সভাপতি বলেন, মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ডোপ টেস্ট বিধিমালায় গণপরিবহনের চালকসহ সব স্তরের শ্রমিকদের ডোপ টেস্টের আওতায় আনা হচ্ছে। এছাড়া উচ্চতর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ডোপ টেস্ট নিশ্চিত করা হচ্ছে। আর কমিটির সভাপতি হিসেবে আমি বলেছি, ১৭ কোটি মানুষকে ডোপ টেস্টের আওতায় আনা জরুরি।

[৯] বৈঠকে ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টারের সার্বিক কার্যক্রমের উপর প্রতিবেদন উপস্থাপন ও বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।
[১০] কমিটির সভাপতি মোঃ শামসুল হক টুকু’র সভাপতিত্বে মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ ভবনে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
বৈঠকে কমিটির সদস্য ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন, মোঃ হাবিবর রহমান, সামছুল আলম দুদু, কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, মোঃ ফরিদুল হক খান, পীর ফজলুর রহমান, নূর মোহাম্মদ এবং সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ অংশগ্রহণ করেন।

 

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত