প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঢাবিতে দুই ছাত্রলীগ নেত্রীর কাণ্ড !

ডেস্ক রিপোর্ট : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের এক নেত্রীকে পিটিয়েছেন অন্য দুই নেত্রী। মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে বঙ্গবন্ধু টাওয়ারের সামনে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী নেত্রীর নাম ফাল্গুনী দাস তন্বী। তিনি রোকেয়া হল ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। আর মারধরে অভিযুক্ত দুই নেত্রী হলেন- কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেনজীর হোসেন নিশি ও শামসুন্নাহার হলের সাধারণ সম্পাদক জেয়াসমিন শান্তা। ভুক্তভোগী ও অভিযুক্তরা সবাই কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের অনুসারী। এই নিয়ে ভুক্তভোগী নেত্রী বিচার চেয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে অভিযোগ করেছেন। সংগঠনে বিচার না পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান তিনি।

এই বিষয়ে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য বলেন, আমরা জানতাম তাদের মধ্যে এমন উত্তেজনা ছিল। কিন্তু তারা হঠাৎ কী কারণে মারামারি করেছে জানি না। দোষীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। এই বিষয়ে ভুক্তভোগী ফাল্গুনী দাস তন্বী বলেন, বেনজীর হোসেন নিশি এবং জেয়াসমিন শান্তা রাত ১২টার দিকে তাকে ফোন দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদে ডেকে নেয়। সেখানে যাওয়ার পর বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে থাকে। একপর্যায়ে তারা মারতে উদ্যত হলে সেখান থেকে দৌড়ে পালান তিনি। তারা ধাওয়া করে পিছু নেয়। পরে বঙ্গবন্ধু টাওয়ারের সামনে তাকে ধরে ফেলে। এরপর তাকে মারধর করে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, মারধরের একপর্যায়ে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়লে শান্তা তার পায়ে জোরে চাপ দিয়ে ধরে রাখে আর নিশি এক পা দিয়ে চাপা দিয়ে এলোপাতাড়ি লাথি মারতে থাকে। তারা গলায় পাড়া দেয়। একপর্যায়ে গলা দিয়ে রক্ত বের হয়। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল টিমের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। সূত্র: মানব জমিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত