প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] রাউজানে শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ, ধর্ষক আটক

শাহাদাত হোসেন: [২] ২০২০ সালে এক বছরে এবার মহামারী করোনা ভাইরাসকেও ছাড়িয়ে গেছে ধর্ষণের ঘটনা। প্রতিদিন দেশে কোন কোন জেলায় ঘটছে নারী ও শিশু ধর্ষণের মতো ঘটনা। চট্টগ্রামের রাউজানে সাধন বড়ুয়া (৬০) নামের এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী ১১ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষণের পর শিশুটির হাতে ৫০০ টাকার নোট ধরিয়ে দেয়া হয়। এঘটনার ২দিন পর অভিযুক্ত সাধন বড়ুয়ার বিরুদ্ধের অবশেষে মামলা নিল রাউজান থানা পুলিশ।

[৩] সোমবার (৫ অক্টোবর) সন্ধ্যায় রাউজান থানায় এ মামলা দায়ের করেন ধর্ষিতার পিতা সুকুমার বড়ুয়া। শিশু ও নারী নির্যাতন আইনের ৯ এর ১ ধারায় এ মামলা রুজু করা হয়। র‌্যাব-৭ এই ঘটনায় জড়িত ধর্ষক সাধন বড়ুয়া (৭৫) কে গ্রেফতার করেছে।

[৪] জানা যায়,গত শনিবার বিকেলে উপজেলার ১২ নং উরকিরচর ইউনিয়নের আবুরখীল নন্দন কানন এলাকায় এই ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে।মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়,সাধন বড়ুয়া (৩ অক্টোম্বর) শনিবার বিকেলে আনুমানিক ৪ টার সময় অবুজ মাতৃহারা নাবালিকা শিশুটিকে ফুঁসলিয়ে ও লোভ লালসা দেখিয়ে তার বসতঘরের দক্ষিণ পার্শ্বের পুকুর পাড়ে জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষণ করে ৫শত টাকার একটি নোট হাতে ধরিয়ে দেন।পরে শিশুটির পিসি তার হাতে ৫০০ টাকার নোট দেখে জিজ্ঞাসাবাদ করলে শিশুটি ঘটনা খুলে বলে।

[৫] মামলা বিলম্বে দায়ের করার কারণ জানতে চাইলে দাবি সুকুমার বড়ুয়া বলেন, যিনি ধর্ষক তিনি আমার আত্মীয়, একারণে আমরা বিষয়টি সমঝোতা করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু তারা এটাকে অপরাধ মনে করছেনা বিধায় মামলা করতে বাধ্য হয়েছি।

[৬] রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল হারুন মামলা রুজুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সোমবার সন্ধ্যায় ধর্ষণ মামলা রুজু হয়েছে। ভিকটিম থানা হেফাজতে আছে তাকে মঙ্গলবার পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে। র‌্যাব-৭ এর হাটহাজারী অফিসে যোগাযোগ করা হলে জানানো হয় ধর্ষক পালিয়ে স্থানীয় এক প্রভাবশালী ব্যক্তির ঘরে আশ্রয় নিতে যাওয়ার পথে ওই গ্রাম থেকে সোমবার সন্ধ্যায় র‌্যাব-সদস্যরা ধর্ষককে আটক করেছে। সম্পাদনা: সাদেক আলী

সর্বাধিক পঠিত