প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তুরস্কের ড্রোন বিপ্লব : আজারবাইজানের পাশে দাঁড়িয়েছে তুরস্ক

ডেস্ক রিপোর্ট : নাগোর্নো-কারাবাখ অঞ্চল নিয়ে যুদ্ধে জড়িয়ে গেছে আর্মেনিয়া-আজারবাইজান। যুদ্ধে দিন দিন বাড়ছে দুদেশের নিহতের সংখ্যা। এমন পরিস্থিতির মধ্যে আজারবাইজানের পাশে দাঁড়িয়েছে তুরস্ক। দেশটি অনুরোধ করলে সব ধরণের সামরিক সহযোগিতা দেবে বলে জানিয়েছে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভাসগ্লু।

বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা আনাদলুকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা জানান। তিনি জানান, তুরস্ক প্রয়োজনীয় সবকিছু করবে যদি আজারবাইজান আঙ্কারাকে সমর্থনের অনুরোধ জানায়।

এর আগে, তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান আজারবাইজানের পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন।

উল্লেখ্য, দুই দেশের মধ্যে নাগরনো কারাবাখ নিয়ে নতুন করে সংঘর্ষ শুরু হয়। ব্যাপক গোলাগুলির পর পরিস্থিতি যুদ্ধাবস্থায় পৌঁছেছে। এ প্রেক্ষাপটে আর্মেনীয় সরকার সামরিক আইন জারি করে নিজ জনগণকে যুদ্ধের জন্যে প্রস্তুত হতে বলেছে। আর্মেনিয়ার দাবি, প্রথমে আজারি বাহিনী তাদের বাহিনীকে লক্ষ্য করে গোলা ছোড়ে।

 

কিন্তু আজারবাইজান বলছে, আর্মেনিয়ার বাহিনীই প্রথমে তাদের সেনা ও বেসামরিক স্থাপনা লক্ষ্য করে গোলাবর্ষণ করে।

নাগোরনো-কারাবাখকে আজারবাইজান নিজেদের বলে দাবি করে এলেও আর্মেনীয় নৃগোষ্ঠীর লোকজন অঞ্চলটি নিয়ন্ত্রণ করে আসছে, আর্মেনিয়া তাদের সমর্থন দিচ্ছে। ১৯৮৮-৯৪ সাল পর্যন্ত যুদ্ধে অঞ্চলটি আজারবাইজান থেকে বিচ্ছিন্ন হলেও স্বাধীন দেশ হিসেবে এখনও কোনো দেশের স্বীকৃতি পায়নি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত