-->

প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] রাজনীতি, সংবিধান ও রাজতন্ত্র সংস্কারের দাবিতে থাইল্যান্ডে বিক্ষোভ মিছিল

সিরাজুল ইসলাম: [২] রাজধানী ব্যাংককে রোববার হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে আসে। তাদের বেশিরভাগই শিক্ষার্থী। বিবিসি

[৩] থাইল্যান্ডে রাজতন্ত্র স্পর্শকাতর বিষয়। এর সমালোচনা করলে দীর্ঘ কারাভোগ করতে হয়। বিপুল বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কিন্তু বিক্ষোভকারীরা বলছেন, রোববারের বিক্ষোভ রাজতন্ত্র সংস্কারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

[৪] ২৯ বছর বয়সী শিক্ষার্থী কুকিক বলেন, তারা বিভিন্ন স্থান থেকে বিভিন্ন বয়সের লোকজন জমায়েত হয়েছে।

[৫] পর্যবেক্ষকরা বলছেন, ২০১৪ সালে অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতাসীন হন প্রধানমন্ত্রী প্রেয়ুথ চান-ওচা। এরপর থেকে এটা সরকারবিরোধী গণতন্ত্রপন্থিদের সব চেয়ে বড় বিক্ষোভ মিছিল। তাদের হাতে ব্যানার ছিলো। স্বৈরতন্ত্র নিপাত যাক, গণতন্ত্র দীর্ঘজীবী হোক বলে তারা স্লোগান দেন।

[৬] তারা প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছেন। তিনি সাবেক সামরিক কর্মকর্তা। গত বছর বিতর্কিত নির্বাচনে তিনি জয়ী হন। ব্যাংককে বিবিসির জনাথন বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে রাজতন্ত্র নিয়ে বিতর্ক জোরালো হয়েছে। প্রায় ৬০০ পুলিশ কর্মকর্তা বিক্ষোভ পর্যবেক্ষণ করেছেন। তবে রাজতন্ত্রের পক্ষেও বিপুল মানুষ মিছিল করেছে।

[৭] গত বছরের নির্বাচনে পরিবর্তনের আশা দেখেছিলেন তরুণরা। কিন্তু তাদের সেই আশা নিরাশায় পরিণত হয়েছে। কারণ সেনাবাহিনী রাজনীতিতে হস্তক্ষেপ করছে। আর এ কারণেই বিজয়ী হয়েছেন প্রেয়ুথ। তিনি বলেন, বেশিরভাগ মানুষ বিক্ষোভকারীকে সমর্থন করে না।

[৮] ফেব্রুয়ারিতে গণতন্ত্রপন্থিদের বিক্ষোভ করার নেপথ্যে রয়েছে ফিউচার ফরওয়ার্ড পার্টিকে নিষিদ্ধ করা। আদালত এটাকে নিষিদ্ধ করেছে।

সর্বাধিক পঠিত