প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিনে পয়সায় সানচেজকে বিক্রি করে ম্যানইউর লাভ ৫৫ মিলিয়ন পাউন্ড

স্পোর্টস ডেস্ক : [২] অবশেষে মুক্তি, অবশেষে পরিত্রাণ, চড়া পারিশ্রমিকে আর্সেনাল থেকে আলেক্সিস সানচেজকে কিনে এনে যেন বিপদেই পড়ে গিয়েছিল ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। একই সঙ্গে দুঃস্বপ্নের ঘোরে ছিলেন সানচেজও। তবে এ দুঃস্বপ্নের সমাপ্তি হতে যাচ্ছে দুই পক্ষের জন্যই। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়তে রাজি হয়েছেন এ চিলিয়ান তারকা। তাতে ৫৫ মিলিয়ন পাউন্ড বেচে যাচ্ছে রেড ডেভিলদের। এমন সংবাদই প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো।

[৩] ২০১৮ সালে ইউনাইটেডে যোগ দেন সানচেজ। কিন্তু ক্লাবটিতে যোগ দেওয়ার পরই ছন্দ হারিয়ে ফেলেন তিনি। এক সময় একাদশেই জায়গা অনিশ্চিত হয়ে পড়ে তার। ক্লাবটির হয়ে ইংলিশ লিগে ৩২টি ম্যাচ খেলে জালের দেখা পেয়েছেন মাত্র ৩ বার। সবমিলিয়ে ৪৫ ম্যাচে ৫ বার। অথচ সবমিলিয়ে প্রতি সপ্তাহে ৫ লাখ ৫০ হাজার পাউন্ড বেতন নিতেন ক্লাব থেকে। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় পৌনে ৭ কোটি।

[৪] তাই বাধ্য হয়ে তাকে বেচে দেওয়ার চিন্তা করে ক্লাবটি। কিন্তু তাকে এতো বিশাল পরিমাণ বেতন দিয়ে কেনার মতো ক্লাব ছিলো না একটিও। আর কম বেতনে কোথায় যেতে রাজি নন তিনি। তাই বসিয়ে রাখার চেয়ে ভর্তুকি দিয়ে তাকে ধারে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয় ক্লাবটি। বাৎসরিক মাত্র ৭ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে ইন্টার মিলানে যোগ দেন তিনি। যদিও তার বেতনের সিংহভাগ দিত ইউনাইটেডই।

[৫] এদিকে, মহামারি করোনাভাইরাসের এ সময়ে আর্থিক সংকটে পড়েছে প্রায় সব দলই। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও বটে। ক্লাবের সঙ্গে সানচেজের চুক্তি বাকি এখনও দুই বছরের। ফলে বড় অঙ্কের ক্ষতির মুখে পড়বে ক্লাবটি। সব মিলিয়ে ৫৫ মিলিয়ন পাউন্ড। তাই ক্ষতি পোষাতে তার সঙ্গে ফের আলোচনায় বসে ক্লাবটি। শেষ পর্যন্ত তাকে রাজি করাতে পেরেছে ক্লাবটি। ইউনাইটেড ছাড়ছেন সানচেজ। তবে ফ্রি ট্রান্সফারে ক্লাবটি তাকে ছাড়তে রাজি হওয়ায় মেনে নিয়েছেন এ চিলিয়ান।

[৬] আর এ সুযোগটা ভালোভাবেই নিচ্ছে ইন্টার। ইংলিশ ক্লাবটির সঙ্গে তিন বছরের চুক্তি করেছিল তারা। ফলে আগামী দুই বছরের জন্য আরও ১৫ মিলিয়ন পাউন্ড দিতে হতো তাদের। এখন বিনে পয়সায় সানচেজকে দলে টানতে পারছে তারা। যদিও কি পরিমাণ বেতন ভাতায় তাকে দলে নিচ্ছে তা এখনও জানা যায়নি। ধারণা করা হচ্ছে বেতন ভাতায় বেশ বড় ছাড় দিচ্ছেন সানচেজ। – ডেইলি স্টার

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত