প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দানাং শহরে বেড়াতে গিয়ে বিপাকে পড়েছেন ৮০ হাজার মানুষ

নিউজ ডেস্ক : করোনা প্রাদুর্ভাবের শুরুতেই লাগাম টেনে ধরে ভিয়েতনাম। কঠোর লকডাউন আর সীমান্ত বন্ধ করে টানা চারমাস করোনামুক্ত ছিল দেশটি। কিন্তু একটু অসতর্কতাতেই আবারও শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে সেখানে।
ভিয়েতনামের পর্যটন নগরী দানাং থেকে সব ফ্লাইট বন্ধ এবং ১৪ দিনের জন্য সম্পূর্ণ লকডাউন জারি করেছে দেশটি। ভিয়েতনামের দানাং শহরে বেড়াতে গিয়ে বিপাকে পড়েছেন ৮০ হাজার মানুষ। ডিবিসি টিভি

এপ্রিলের পর গেল শনিবার প্রথম একজন করোনা রোগী আক্রান্ত শনাক্ত হন। ৫৭ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির কিছু উপসর্গ থাকলেও চারবার পরীক্ষার পর তার করোনা শনাক্ত হয়। কন্ট্যাক্ট ট্রেসিং করে দেখা যায়, আরও শতাধিক ব্যক্তি তার সংস্পর্শে এসেছিলেন।

এরপর রবিবার তিনজন, সোমবার ১১ জন এবং বুধবার আরও ৮ জন করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হন। এদের মধ্যে রয়েছেন চার স্বাস্থ্যকর্মী। পর্যটন নগরী দানাং এবং তার আশেপাশের অঞ্চলে এসব সংক্রমণ হয়েছে।

নতুন করে সংক্রমণের ঘটনায় আতঙ্কে শহর ছাড়ছেন পর্যটকরা। একসময় করোনা ঠেকিয়ে আত্মবিশ্বাসী ভিয়েতনামে এখন নতুন করে করোনা মহামারির আশঙ্কা করা হচ্ছে।

দানাংয়ে কঠোর লকডাউন জারির নির্দেশ দেয়া হয়েছে, যা কার্যকর হবে বৃহস্পতিবার থেকে। এছাড়া দানাং থেকে ৮০ হাজার মানুষকে ১৩০টি ফ্লাইটে অন্যান্য শহরে সরিয়ে নেয়া হবে। দানাংয়ে ভ্রমণ করতে গিয়েছিলেন তারা। শহর থেকে বাস, ট্রেন চলাচলও সম্পূর্ণ বন্ধ করা হয়েছে।

দীর্ঘদিন অভ্যন্তরীন সংক্রমণ না হওয়ায় বিদেশফেরত কারও মাধ্যমে করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা করা হচ্ছে। তবে এবিষয়ে এখনও নিশ্চিত নয় কর্তৃপক্ষ। এর আগে, করোনা ঠেকাতে সফল হওয়ায় অর্থনীতিকে চাঙা করতে স্থানীয় পর্যটকদের জন্য পর্যটনকেন্দ্রগুলো খুলে দেয় ভিয়েতনাম।

সর্বাধিক পঠিত