প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] যশোর লাউখালী বাওড়ের মাছ বিক্রির ভাগ নিয়ে সন্ত্রাসীদের হামলা শ্লীলতাহানী ও স্বর্ণের চেইন লুটের অভিযোগে মামলা

যশোর প্রতিনিধি: [২] জেলার সদর উপজেলার লাউখালী বাওড়ে মৎসচাষীদের কাছে দাবিকৃত চাঁদার টাকা না পেয়ে মকবুল হোসেন নামে এক মৎসচাষী ও তার পরিবারকে মারপিট করে স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগে কোতয়ালি থানায় মামলা হয়েছে।

[৩] মামলায় ৮ সন্ত্রাসীর নাম উল্লেখ করে এজাহার দায়ের করা হয়েছে। আসামীরা হচ্ছে, ভাগলপুর গ্রামের মীর ব্লুর ছেলে লাভলু, আব্দুল জলিলের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক, মৃত মদন দফাদারের ছেলে হারুন, মৃত আব্দুল মজিদ গাজীর ছেলে ওবায়দুল, অজিত ব্যাপারীর ছেলে নজরুল ইসলাম, মৃত পরশ উল্লাহর ছেলে মশিয়ার রহমান , নাটুয়াপাড়া গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে আব্দুল মতিন মন্ডল, একই গ্রামের দলিল উদ্দিন দফাদারের ছেলে লিটন সহ অজ্ঞনতামা ৭/৮ জন।

[৪] ১নং হৈবতপুর ইউনিয়নের ভাগলপুর গ্রামের ছবেদ আলী মন্ডলের ছেলে মকবুল হোসেন শুক্রবার ৩ জুলাই রাতে কোতয়ালি থানায় আসামীদের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন।

[৫] দায়েরকৃত মামলায় তিনি বলেছেন, তিনিসহ একই গ্রামের কালাম, বিল্লাল,আকরাম, মোজাহার ও কাশেম সরকারের সকল নিয়ম মেনে লাউখালী বাওড় লিজ নিয়ে মাছ চাষ করে আসছে। আসামীরা প্রায় সময় তাদেরকে বাওড়ের মাছ বিক্রির টাকার ভাগ চায়। কিন্তু তারা ভাগ দিতে তিনি অপারগতা প্রকাশ করে। গত ১৪ জুন বিকেল ৫ টায় মকবুল হোসেন ভাগলপুর গ্রামস্থ নিজ বাড়ির উঠানে অবস্থান করছিলেন।

[৬] এসময় আসামি লাভলুর হুকুমে অন্য আসামীরা তার বাড়িতে হামলা করে। স্বামীকে উদ্ধার করতে মকবুল হোসেনের স্ত্রী তাসলিমা এগিয়ে আসলে তাকে মারপিটসহ পরনের কাপড় টেনে হেচড়ে শ্লীলতাহানী ঘটায়। গলায় থাকা ১২ আনা ওজনের স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয়। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত