প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ডা. জাফরুল্লাহর শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি, তবে শঙ্কা মুক্ত নন

শিমুল মাহমুদ: [২] গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী আগের চেয়ে কিছুটা ভালো। সকালে ফ্রেশ হয়ে নাশতা খেয়েছেন। স্টাফদের সঙ্গে কথা বলছেন। নিজে ঔষধ খেয়েছেন। সবমিলিয়ে গতকালে তুলনায় আজ কিছুটা ইমপ্রুভ হয়েছে। তবে এখনও অক্সিজেন লাগিয়ে রাখা হয়েছে। অক্সিজেনের পরিমাণ আগের তুলনায় কম লাগছে।
শনিবার (৬ জুন) সকালে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. ফরহাদ  আমাদের সময় ডটকমকে এসব তথ্য জানান।
[৩] কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে ৭৯ বছর বয়স্ক এই চিকিৎসক গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। মো. ফরহাদ বলেন, রাতে ডায়লাইসিস হয়েছ, প্লাজমা নিয়েছেন।
[৪] এর আগে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. মহিবুল্লাহ খন্দকার আমাদের নতুন সময়কে বলেন, এতদিন পর্যন্ত ভালোই ছিলেন। নিজেই নিঃশ্বাস নিয়ে চলছিলেন এখন ওনাকে অক্সিজেন দিতে হচ্ছে।
[৫] তিনি বলেন, ভাইরাসের পছন্দের জায়গা হচ্ছে মানুষের ফুসফুস। কোভিড আক্রান্ত হলে ফুসফুসও আক্রান্ত হয়ে নিউমোনিয়ার দিকে যায়। বর্তমানে তার ফুসফুস কিছুটা আক্রান্ত। তবে সেটা পুরোপুরি নিউমোনিয়ায় রূপ নেয়নি। বর্তমানে তাকে সম্পূর্ণরূপে অক্সিজেন দিয়ে রাখা হয়েছে। গতরাতের তুলনায় এখন তার অবস্থা কিছুটা ভালো। তবে, স্থিতিশীল নয়। তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।
[৬] একে তো কিডনি ফেইলর রোগী, ডায়ালাইসিসে আছেন এর মধ্যে আবার কোভিড-১৯ তে আক্রান্ত। আমরা চিকিৎসকরা যা করার করছি এখন পুরোটায় নির্ভর করছে আল্লাহ তালাহর উপর।
[৭] এর আগে দুপুর ২টার দিকে গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালের সহকারী রেজিস্ট্রার ডা. তানভীর চৌধুরী বলেন, ৬-৭ লিটার অক্সিজেন লাগছে। শ্বাসকষ্ট আছে। দুটি ফুসফুসই আক্রান্ত হয়েছে। আজকে তার বুকের এক্স-রে রিপোর্টও ভালো আসেনি।
[৮] তিনি বলেন, ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর কিডনি চিকিৎসার অংশ হিসেবে নিয়মিত ডায়ালাইসিস করাতে হয় গতকাল যখন তার কিডনি ডায়ালাইসিস শুরু হয়, সে সময় শারীরিক অবস্থার কারণে ডায়ালাইসিস সম্পন্ন করা যায়নি। বর্তমানে তিনি চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে আছেন।
[৯] গত ২৫ মে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত শনাক্ত হওয়ার পরেই তার স্ত্রী শিরীন হক ও ছেলে বারিশ চৌধুরীরও করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত