প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]ট্রাম্পকে সমর্থন দেয়া কৃষ্ণাঙ্গরা সত্যিকারের কৃষ্ণাঙ্গ নয়, মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন জো বাইডেন

লিহান লিমা: [২] ২০২০ সালের মার্কিন নির্বাচনে ডেমোক্রেট দলের হয়ে মনোনায়ন প্রত্যাশি বাইডেন বলেছেন, যদি আফ্রো-আমেরিকানরা আমাকে কিংবা ট্রাম্পের মধ্যে যে কাউকে বেছে নেয়া নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভোগে তবে বুঝতে হবে তারা সত্যিকারের কৃষ্ণাঙ্গ নয়। বাইডেনের এই মন্তব্যে তীব্র সমালোচনা করেন প্রেসিডেন্টের সমর্থকসহ অন্যান্যরা। বিবিসি, দ্য গার্ডিয়ান

[৩] তবে পরবর্তীতে নিজের এই মন্তব্যের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেন বাইডেন। তিনি বলেন, ‘কোনো ব্যক্তিরই কাউকে কারো জাতি, ধর্ম, বর্ণ ও অতীত অবস্থা বিবেচনা করে ভোট দেয়া উচিত নয়।

[৪] এর আগে ১৮ মিনিটের সাক্ষাতকারে বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রের কৃষ্ণাঙ্গ সম্প্রদায়ের সঙ্গে তার দীর্ঘদিনের সম্পর্কের কথা ব্যক্ত করেন। তিনি আরো বলেন, সাউথ ক্যারোলিনা অঙ্গরাজ্যে এ বছর তাকে কেউ হারাতে পারবে না। এই অঙ্গরাজ্যের ৬০শতাংশেরও বেশি আফ্রো-আমেরিকান অধিবাসী।

[৫] বাইডেন বলেন, ‘আমি প্রত্যেকটি কাউন্টিতে জিতবো। বারাকসহ আমি সবচেয়ে বেশি কৃষ্ণাঙ্গের ভোট পাবো। প্রসঙ্গত এই কাউন্টিরই প্রথম আফ্রো-আমেরিকান প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এর আগে বাইডেনকে রানিং মেট হিসেবে নিয়েছিলেন।’

[৬] বাইডেন প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, এবারে ডেমোক্রেট দলের হয়ে নির্বাচনে টিকিট পেলে তিনি কোনো কৃষ্ণাঙ্গ নারীকে নিজের রানিং মেট হিসেবে নির্বাচিত করবেন।

[৭] তবে বাইডেনের এ মন্তব্যের সপক্ষে তার পরামর্শক সায়মন স্যান্ডার্স বলেছেন, তার মন্তব্যকে ভুলভাবে আখ্যা করা হয়েছে। তিনি শুধুমাত্র এটিই বোঝাতে চেয়েছেন যে আফ্রো-আমেরিকান সম্প্রদায় এক সময় ট্রাম্পের বিরুদ্ধে জেগে উঠবে।

[৮] এদিকে কৃষ্ণাঙ্গ অধিকারকর্মীরা বাইডেনের মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করছেন। কৃষ্ণাঙ্গ রিপাবলিকান সিনেটর টিম স্কট বলেন, ‘বাইডেনের মন্তব্য আগ্রাসী, আমার শোনা সবচেয়ে নিন্দনীয় মন্তব্য। যুক্তরাষ্ট্রে ১৩ লাখ আফ্রো-আমেরিকান রয়েছে। এর মধ্যে যদি কেউ বাইডেনকে পছন্দ না করেন তবে সে কি কৃষ্ণাঙ্গ নয়?

[৯] এর আগে বাইডেনের বিরুদ্ধে এক নারী যৌন হয়রানির অভিযোগ আনেন। বাইডেন সেটি সরাসরি নাকচ করে দেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত