প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] আমেরিকার ৩০ শতাংশ মানুষ করোনার ভ্যাকসিন নিতে অনিচ্ছুক

রাজু আলাউদ্দিন : [২] করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন পাওয়া গেলেও তা নিতে অনীহা প্রকাশ করেছেন আমেরিকার ৩০ শতাংশ মানুষ! পিআর ফার্ম বোসপারের জরিপ বলছে, দেশটির এক-তৃতীয়াংশ প্রাপ্ত বয়স্ক জানিয়েছেন, ভাইরাস প্রতিরোধে ভ্যাকসিনের প্রতি তাদের আস্থা নেই।

[৩] জরিপের পেছনে নিজেদের উদ্দেশের কথা জানাতে গিয়ে বোসপারের প্রধান কর্মকর্তা কার্টিস স্পারার ডেইলি-মেইলকে বলেন, লকডাউনের বিরুদ্ধে দেখছি অনেকে আন্দোলন করছেন। মানুষ আসলে কী ভাবছে, সেটি জানতে আমরা এমন জরিপ চালাই। সামগ্রিক চিত্র নিয়ে আমি হতাশ। বাজি ধরে বলতে পারি আরও অনেক মানুষ ভ্যাকসিন নেবে না।

[৪] জরিপটি হয়েছে এপ্রিলের শেষ দিকে, ২৮ এবং ২৯ তারিখ। বাজার জরিপকারী সংস্থা প্রোপেলার বোসপারের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করেছে। তারা ১ হাজার প্রাপ্ত বয়স্ক ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলেন। ভ্যাকিসন তৈরি হলে তারা নিতে চান কি না, এমন প্রশ্নের পাশাপাশি অংশগ্রহণকারীদের কাছে জানতে চাওয়া হয়, যারা ভ্যাকসিন নেবেন তাদের প্রতি দৃষ্টিভঙ্গি কী?

[৫] ভ্যাকসিনের প্রতি মার্কিনীদের অনীহা নতুন কিছু নয়। স্পারার বলছেন, করোনা আসার পরেও এই দৃষ্টিভঙ্গি পাল্টাচ্ছে না। যাদের বয়স ১৮ থেকে ২৪ বছর তাদের মধ্যে ৫৭.৬ শতাংশ ভ্যাকসিন নিতে চান। তরুণেরা এই রোগে কম আক্রান্ত হন, এমন চিন্তা থেকে অনেকে ভ্যাকসিন নিতে চান না বলে ধারণা স্পারারের।

[৬] ভ্যাকসিন নেয়া কিংবা না নিতে চাওয়াদের মধ্যে শিক্ষাগত যোগ্যতারও একটা পার্থক্য দেখা গেছে। মাস্টার্স পাস করা মানুষদের ৮১ শতাংশ ভ্যাকসিন নিতে চান।

[৭] গোটা পৃথিবীতে প্রায় শতাধিক কোম্পানি করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কারের চেষ্টা করছে। গত মার্চে ব্রিটেনের অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি তাদের চাডক্স১ এনকভ-১৯ ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়াল দিয়েছে। ট্রায়াল দিয়েছে চীনও। আমেরিকায় এ নিয়ে একাধিক কোম্পানি ট্রায়াল দিল। মার্কিন প্রশাসনের সহযোগিতায় প্রথম ট্রায়াল শুরু করে মার্ডানা

সর্বাধিক পঠিত