প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জন্মশতবার্ষিকীর সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে জাপানে সম্পন্ন হয়েছে দেশের প্রথম উড়াল মেট্রোরেলের ট্রায়াল রান

মাজহারুল ইসলাম : [২] গতকাল রাতে মেট্রোরেল বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠান ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) ফেসবুক পেজে এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়।

[৩] এতে দেখা যায় স্টেইনলেস স্টিলের তৈরি ৬টি কোচসম্বলিত মেট্রোরেলটিতে জাতীয় পতাকার লাল-সবুজ রঙের প্রাধান্য রয়েছে। এর সর্বোচ্চ যাত্রী ধারণক্ষমতা ২ হাজার ৩০৮ জন। সব ধরনের ফ্যাক্টরি ট্রায়াল সম্পন্ন হওয়ার পর আগামী ১৫ জুন প্রথম মেট্রোরেলটি দেশে পৌঁছার কথা রয়েছে।

[৪] ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট সূত্র জানায়, ২০২১ সালের ১৬ ডিসেম্বরে স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে প্রথম ধাপে দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত মেট্রোরেল উদ্বোধনের পরিকল্পনা রয়েছে। এরই অংশ হিসেবে মেট্রোরেলের ইতিহাস তুলে ধরতে দিয়াবাড়িতে নির্মিত হচ্ছে মেট্রোরেল এক্সিবিশন অ্যান্ড ইনফরমেশন সেন্টার। গতকালই ওখানে মেট্রোরেলের এ মক বগিটি সংরক্ষণ করা হয়েছে।

[৫] জানা যায়, মেট্রোরেল নির্মাণে অতি স্বল্প সুদে ঋণ দিয়েছে জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি (জাইকা)। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের অধীনে থাকা ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড।

[৬] রাজধানীর ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে কার্যকর গণপরিবহন ব্যবস্থা গড়ে তোলার দেশি-বিদেশি পরিবহন বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে গঠিত বোর্ড ঢাকা মহানগরীর জন্য এসটিপি প্রণয়ন করে।

[৭] এ এসটিপিতে অন্তর্ভুক্ত এমআরটি লাইন-৬ কে (দিয়াবাড়ি থেকে মতিঝিল পর্যন্ত) অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নির্মাণের জন্য ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট উন্নয়ন প্রকল্পের উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা (ডিপিপি) ২০১২ সালের ১৮ ডিসেম্বর জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির সভায় পাস হয়। ২০১২ সালের জুলাইয়ে ২১ হাজার ৯৮৫ কোটি ৭ লাখ ২১ হাজার টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ের এ প্রকল্প ২০২৪ সালের জুনের মধ্যে শেষ হওয়ার কথা।

সর্বাধিক পঠিত