প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তিতাসের উচ্ছেদ অভিযানে গাজীপুরে ১০০০ বাড়ীর গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

আফজাল হোসেন : গাজীপুরে গার্মেন্টস কারখানায় কর্মরত শ্রমিকদের থাকার জন্য ব্যক্তিমালিকানায় গড়ে তোলা হয়েছে কলোনী। প্রতিটি কলোনীতে রয়েছে কয়েক হাজার ঘর। আর এসব প্রতিটি কলোনীতে দেওয়া হয়েছে অবৈধ গ্যাস সংযোগ।

শ্রমিকদের রান্না বান্নার সুবিধার জন্য স্থানীয় কলোনীর মালিকরা এসব অবৈধ সংযোগ প্রদান করেছেন স্থানীয় প্রভাবশালীদের সহযোগিতায় । বিনিময়ে প্রতিটি সংযোগ প্রদানের জন্য দালালরা নিয়েছে ৫০ থেকে ৮০ হাজার টাকা । আর কলোনীর মালিকরাও বেশি টাকায় ঘর ভাড়া দিতে পারছেন গ্যাস সংযোগ থাকার কারনে।

গাজীপুর জেলার সদর উপজেলার শিশির চালা, শ্রীপুর পৌর এলাকার বৈরাগীরচালা ও বেতজুড়ি এলাকায় অবৈধ গ্যাস লাইন উচ্ছেদ করতে গিয়ে তিতাসের কর্মকর্তারা সন্ধান পেয়েছেন এসব কলোনীতে
ঝুঁকিপূর্ণ হাজার হাজার সংযোগ।

মঙ্গলবার সকাল থেকে সন্ধা পর্যন্ত প্রায় সহ¯্রাধিক অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে ওই এলাকার ২টি স্পটে।

তিতাস গ্যাস গাজীপুর আঞ্চলিক অফিসের উপব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মোঃ মোস্তফা মাহবুব জানান, অবৈধ গ্যাস সংযোগ উচ্ছেদের নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে মঙ্গলবার সকালে শ্রীপুর পৌরসভার গরগরিয়া নতুন বাজার ও শিশিরচালা এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয় ।

এসময় প্রায় ৮ কিলোমিটার এলাকার অবৈধ গ্যাস সংযোগ অকার্যকর করা হয় এবং ১০০০ বাড়ীর ২৬০০ চুলার সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয় । এছাড়া আড়াই কিলোমিটার এলাকার পাইপ লাইন অপসারণ করা হয়
এবং অবৈধ গ্যাস ব্যবহারকারীদের বিরুদ্ধে মামলা প্রদান করা হচ্ছে।

জানা গেছে, ডিগনিটি মোড়ের মোতালেব প্রধানের কলোনী, রুকন হাজীর মালিকানাধীন কলোনীর অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। এসময় নাসির উদ্দিন মডেল স্কুলের মালিক নাসির উদ্দিনের বাসা ও কলোনীতে শতাধিক সংযোগ ও স্টার বার্ণার পাওয়া যায় ও তা বিচ্ছিন্ন করা হয়। তবে অভিযানের খবর পেয়ে বাসা ও কলোনীর মালিকরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় ।

অভিযান পরিচালনার সময় তিতাস অফিসের উপব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মোঃ মোস্তফা মাহবুব, প্রকৌশলী সৈয়দ আবু সুফিয়ান, প্রকৌশলী মির্জা শাহনেওয়াজ লতিফ, উপ-সহকারী প্রকৌশলী সাবিনুর রহমান, আনোয়ার হোসেন ও কায়সারসহ আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। সম্পাদনা:জেরিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত