প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাড়ি সংস্কারে ২৫ কোটি টাকা দিতে হবে হ্যারি-মেগানকে

বাংলা ইনসাইডার : যুক্তরাজ্যের ডিউক অব সাসেক্স প্রিন্স হ্যারি ও তাঁর স্ত্রী ডাচেস অব সাসেক্স মেগান মার্কেল তাঁদের রাজকীয় উপাধি আর ব্যবহার করতে পারবেন না। শুধু তাই নয় প্রিন্স হ্যারি ও তার স্ত্রী মেগান মার্কেলকে সরকারি বাসস্থান ফ্রগমোর কটেজ সংস্কার করতে যে অর্থ ব্যয় হয়েছে সেটিও পরিশোধ করতে হবে। শনিবার বাকিংহাম প্রাসাদের পক্ষ থেকে এক বিবৃতির এ তথ্য জানানো হয়।

মেগান দম্পতিও জানিয়েছেন, যুক্তরাজ্যে তাঁদের ফ্রগমোর কটেজ সরকারি অর্থে সংস্কার করতে যে প্রায় ২৫ লাখ পাউন্ড (বাংলাদেশি টাকায় ২৫ কোটি টাকা) খরচ হয়েছে,তা তাঁরা শোধ দিয়ে দেবেন। যুক্তরাজ্যে অবস্থানকালে তাঁরা এখন থেকে ওই কটেজেই থাকবেন। শনিবার এক বিবৃত্তিতে এই অর্থ নিজের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে পরিশোধ করার কথাও জানিয়েছেন হ্যারি।

সম্প্রতি আকস্মিক রাজকীয় দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়ার ঘোষণা দেন হ্যারি ও মেগান। জনগণের অর্থের ওপর নির্ভরশীল না হয়ে আয় করে স্বাধীনভাবে জীবনযাপন করার ঘোষণা দেন। তারা দুজনে ভাগাভাগি করে যুক্তরাজ্য ও কানাডায় সময় কাটানোর কথা জানান।
রাজপরিবারের দায়িত্ব থেকে হ্যারি ও মেগান দায়িত্ব থেকে ইস্তফা দিলেও সরকারি বাসস্থান ফ্রগমোর কটেজেই থাকার কথার জানিয়েছেন। তবে এই কটেজের ব্যবস্থাপনা খরচসহ সকল ব্যয় তাদের নিজেদের পকেট থেকে দিতে হবে। অর্থাৎ সরকারি খরচে থাকা খাওয়ার সুবিধা আর পাচ্ছেন না তারা। কলেজটির ব্যবহারের জন্য প্রতি মাসে তাদেরকে ৩০ হাজার ইউরো ভাড়া দিতে হবে। বছরে ৩ লাখ ৬০ হাজার ইউরো।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত