প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সমুদ্রের প্লাস্টিক বর্জ্য সরাতে অভিনব উপায় বেছে নিয়েছে মালয়েশিয়া

মাজহারুল ইসলাম : নতুন এই পদ্ধতিতে সৌরশক্তিতে পরিচালিত ‘ইন্টারসেপ্টর’ নামের এক ধরনের নৌযানের মাধ্যমে নদী থেকে সমুদ্রের দিকে আসা সব প্লাস্টিক বর্জ্য তুলে নেয়া হবে। বলা হচ্ছে পানি থেকে প্লাস্টিক বর্জ্য সরানোর এটিই সবচেয়ে আধুনিক অস্ত্র।

জানা য়ায়, প্রতিদিনই অসংখ্য প্লাস্টিক বর্জ্য নদী ও সমুদ্রে ফেলা হচ্ছে। এই প্লাস্টিক পরিবেশের জন্য ভীষণ ক্ষতিকর। সামুদ্রিক জীবের ওপরও হুমকি। এমনকি নষ্ট করে দিচ্ছে পর্যটনের প্রাচীন সব স্থান।

পরিবেশ সংরক্ষণ বিষয়ে প্রচার চালানো প্রতিষ্ঠান ওশান কনসার্ভেন্সির তথ্যমতে, প্রতি বছর সমুদ্রগুলোতে ৮০ লাখ টন প্লাস্টিক বর্জ্য ফেলা হয়। প্লাস্টিক অর্থনীতির আকার যতো বড় হচ্ছে, এই বর্জ্যের পরিমাণও ততই বাড়ছে। এটি বন্ধ করতে বিভিন্ন দেশের সরকার এবং পরিবেশ সুরক্ষা গোষ্ঠীগুলো হিমশিম খাচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে নেদারল্যান্ডসের অলাভজনক প্রতিষ্ঠান দ্য ওশান ক্লিনআপ, ইন্টারসেপ্টরের মতো অভিনব উপায় বের করেছে। ৭৮ ফুট লম্বা এই নৌযানে এক ধরনের বাঁকা অংশ আছে, যার মাধ্যমে নদী বা সমুদ্র থেকে ভাসমান পদার্থ তুলে নেয়া যায়। এটি মূলত সমুদ্র থেকে ভাসমান বর্জ্য তুলে যানে জমা রাখার জায়গায় চলে যাবে। প্রতিদিন প্রায় ৫০ টন বর্জ্য তুলতে সক্ষম এই যান।

অক্টোবরে এই ইন্টারসেপ্টর মালয়েশিয়ার ক্ল্যাং নদীর ওপর স্থাপন করা হয়। ব্যাপক দূষিত এই নদী মালয়েশিয়ার প্রধান নৌপথ। রাজধানী কুয়ালালামপুর এবং এর আশপাশের অঞ্চলগুলোর মধ্য দিয়ে এটি প্রবাহিত হচ্ছে। ওশান ক্লিনআপ যৌথভাবে মালয়েশিয়ার সরকারি প্রতিষ্ঠান র‌্যান্ডসান লুমায়ানের সঙ্গে কাজ করছে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত