প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উৎসব নির্বাচন কমিশনকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করা উচিত, বললেন ইশরাক হোসেন

শাহানুজ্জামান টিটু : বিএনপির মেয়র প্রার্থী বলেন, মুসলমানদের ঈদের দিন এমন একটি আয়োজন হলে আমাদেরও খারাপ লাগতো। তবে যেহেতু বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে, তাই এ ব্যাপারে নিয়ে চূড়ান্ত কোন মন্তব্য করতে চাইনা।

বুধবার দুপুরে ধানমন্ডি বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরুর আগে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন এ কথা বলেন।

তিনি অভিযোগ করেন, সন্ত্রাসীরা অনেক জায়গায় ধানের শীষের পোস্টার লাগাতে বাধা দিচ্ছে।বিভিন্ন স্থানে লাগানো পোস্টার ছিড়ে ফেলা হচ্ছে।কর্মীদের মারধর ও পুলিশে ধরিয়ে দেয়ার হুমকি দেয়া হচ্ছে। এসব বিষয়ে নির্বাচন কমিশনে আমরা প্রতিদিনেই অভিযোগ করছি। কিন্তু কমিশনের দিক থেকে কোন উদ্যোগ দেখছি না। এটা লেভেল প্লেয়িং-এর নমুনা হতে পারে না। আওয়ামী লীগের কোন প্রার্থীই নির্বাচনী আচরণ বিধি মানছে না।

নির্বাচনী প্রচারনার ষষ্ঠ দিনে ধানমন্ডি ১৪ নং সড়কে বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে থেকে প্রচার শুরু করেন। ধানমন্ডি ১৫ নম্বর ঝিকাতলা হয়ে হাজারীবাগ, রায়েরবাজার এলাকায় গণসংযোগ করেন ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন। এসময় বিপুল সংখ্যক নারী-পুরুষ গণসংযোগে অংশ নেন।

হাজারীবাগে পথসভায় ইশরাক হোসেন বলেন, ‘হাজারীবাগ মহানগরীর অধীন হলেও এ এলাকার মানুষ আধুনিক সুযোগ সুবিধা পাচ্ছে না। আমরা নির্বাচিত হলে আধুনিক ঢাকার সঙ্গে তাল মিলিয়ে হাজারীবাগের উন্নয়ন করা হবে। গণসংযোগে বিপুল সংখক কর্মী-সমর্থক এবং সাধারন মানুষের অংশগ্রহণকে শো-ডাউন বলে আওয়ামী লীগ যে অভিযোগ করছে তা নাকচ করে তিনি বলেন, এটা শো-ডাউন নয়। এটি এলাকার মানুষের স্বতঃস্ফ‚র্ত অংশগ্রহণ। এটি বিএনপির প্রতি সাধারণ মানুষের ব্যাপক সমর্থনের বহিঃপ্রকাশ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত