প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বসে না থেকে নিজের কাজে মন দাও, চেষ্টা বৃথা যাবে না

ফাহমিদা নবী, ফেসবুক থেকে : আমি দূরেরও না , কাছেরও না। ভালোবাসার, মমতার সেতুবন্ধনও না। প্রত্যেক ইটের গাঁথুনির পর বালু আর সিমেন্টের যে মজবুত বন্ধনের দেয়াল ,তাও না। ভাঙতে ভাঙতেই পথ চলি। বিশ্বাস, অবিশ্বাস, সন্দেহের বিশাল দেয়ালের গল্পের নায়ক নায়িকা আমরা সবাই, আমাদের নাম মানুষ! আমরা সোজা এক দিকনির্দেশনায় চলতে গিয়ে ধাক্কা খাই। ভেঙে আবার উঠে দাঁড়াই।নিজের সাথে বোঝাপড়া করি। অভিনয় করি। সুখের জন্যই তো !

সংগ্রামের জীবনে ছোট থেকে বড় কোন ঘটনাই জীবনধারণের চেয়ে বড় নয়! দুঃখ নয়, কষ্টই কমাতে কতো বেদনাকে আড়াল করি। ভুলে যেতে চাই ঘটনা, নিজেকে গড়তে চাই আবার। প্রত্যেকে নিজেকে অনেক বুদ্ধিদীপ্ত করে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। যার যার জ্ঞানের পরিধি থেকে। অভিজ্ঞতা যার যেমন!

আসলে নিজেকেই ভালো রাখতেই সবার দিকে নজর দেই আমরা! কিন্তু তাই কি হয়? অন্যজন যদি নিজেকে না গড়ে তুমি গড়বে কী করে? ছেড়ে দাও, ছেড়ে দাও। যার ভালো তাকে বুঝতে দাও! যদি নিজের ভালো না বোঝে তাকে ছেড়েই দাও। বরং নিজের খেয়াল করো।

তুমি যা করো সবটাই কিন্তু নিজের জন্য করো, তা খুব সত্যি। কারণ তুমি জানো সবার ভালো থাকা মানে তোমার ভালো থাকা। এভাবেই কতো সময় পার হলো বলতে পারো! আজও নিজেকেই ভালো রাখতে সবার জন্য প্রাণ উজাড় হলে তাইতো? কি, ধাক্কা খেলে?
কই ভালো থাকা কি আর হলো?

প্রশ্নের উত্তর পেয়েছো? খোঁজো উত্তর। অনেক হলো ,বসে না থেকে নিজের কাজে একাগ্রতায় মন দাও। বৃথা যাবে না চেষ্টা। কিছু বিশ্বাসের অর্জনকে কাজে লাগাতে ভুলো না। বিশ্বাসটাকে জয় করো। আমি করি , করবো এবং বোঝাপড়া মতের মিল-অমিল সমঝোতায় শ্রদ্ধা রাখতেই হবে। আলো আসবেই বিশ্বাসের, বিশ্বাস করি।

তাই নিজেকে সময় দাও। দেখবে সব ঠিক হয়ে গ্যাছে। সময়ের পৃষ্ঠা কেউ বদলাতে পারে না। সময় সব ঠিক করেই দেয়। ভালোর ভালো হয়, মন্দের মন্দ। ভালো থাকো । সম্পাদনা : সালেহ্ বিপ্লব

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত