প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

উত্ত্যক্তকারীকে টেনে-হিঁচড়ে পুলিশে দিলো তরুণী

বাংলাদেশ জার্নাল : এক তরুণী তার বাবাকে নিয়ে এসেছিলেন চিকিৎসার জন্য। হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আসা এক যুবক ওই তরুণীকে যৌন হেনস্থা করেন। উত্ত্যক্তকারীকে হাতেনাতে পাকড়াও করে টানতে টানতে এনে পুলিশের হাতে তুলে দেন তরুণী।

বৃহস্পতিবার ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের এসএসকেএম হাসপাতালে। পুলিশের বরাত দিয়ে দেশটির সংবাদ মাধ্যম জানায়, এ দিন সকাল এগারোটা নাগাদ বছর তেইশের এক তরুণী এক যুবককে হাত ধরে টানতে টানতে নিয়ে আসেন এসএসকেএম হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে পুলিশ বক্সে। পুলিশ কর্মকর্তাদের জানান ওই যুবক তাকে যৌন হেনস্থা করেছেন।

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ওই তরুণী পুলিশকে জানিয়েছেন, তার বাবার মস্তিষ্কে রক্ত জমে রয়েছে। সেই চিকিৎসার জন্যই তিনি বাবাকে আউটডোরে দেখাতে এনেছিলেন। আউটডোরে রোগীদের লাইনে বাবাকে দাঁড় করিয়ে তিনি পাশে একটি গাছের ছায়ায় দাঁড়িয়ে ছিলেন। ঠিক সেই সময়ে এক যুবক পিছন থেকে এসে তার গায়ে হাত দিয়ে যৌন হেনস্থা করেন।

সঙ্গে সঙ্গে তিনি ওই যুবকের হাত ধরে ফেলেন এবং আশপাশের লোকজনের সাহায্যে তাকে পুলিশের কাছে নিয়ে যান। অভিযুক্তকে আটক করে ভবানীপুর থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, অভিযুক্তের নাম ফারুক আলি। তিনি মালদহের চাঁচলের বাসিন্দা। এসএসকেএম হাসপাতালে এসেছিলেন মাথার ব্যথার চিকিৎসা করাতে। পুলিশ তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৫৪ ধারায় শ্লীলতাহানির মামলা দায়ের করেছে।

তবে তদন্তকারীদের একাংশের দাবি, ওই অভিযুক্ত মানসিক ভাবে পুরোপুরি সুস্থ নন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত