প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ব্যাংক ডিপিএসের টাকায় হজ করার বিধান

আমিন মুনশি : আমি একটি ইসলামি ব্যাংকে ডিপিএস করেছি এবং সেই টাকায় আমি হজ করতে পারব কি-না? জনৈক ব্যক্তির এমন প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন জামিয়া কাসিমুল উলুম সালেহপুর, আমীন বাজার ঢাকার মুফতি লুৎফুর রহমান ফরায়েজী দা.বা.। তিনি বলেন, বাংলাদেশের ইসলামি ব্যাংকগুলোর ব্যবসায়িক কার্যক্রম পুরোপুরি শরিয়ত সম্মত নয় বলেই আমাদের পর্যবেক্ষণ। তাই ডিপিএস থেকে প্রাপ্ত মুনাফা দিয়ে হজ করা জায়েজ হবে না। কারণ তা সুদী টাকার হুকুমে।

তবে ডিপিএস বাবদ ব্যাংকে যে মূলধন জমানো হয়েছে। সেই মূল টাকা দিয়ে হজ করাতে কোন সমস্যা নেই।হযরত আবু হুরায়রা রা. থেকে বর্ণিত, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন- যখন কোনো ব্যক্তি হালাল সম্পদ নিয়ে হজ করতে বের হয়। বাহনে পা রাখে। উচ্চারণ করে: লাব্বাইক! আল্লাহুম্মা লাব্বাইক! তখন আসমান থেকে ঘোষক ঘোষণা দেয়: লাব্বাইক ওয়া সা’দাইক তথা তোমার কল্যাণ হোক। তোমার আসবাব হালাল। তোমার বাহন হালাল। আর তোমার হজ মকবুল।

আর যদি হারাম সম্পদ নিয়ে হজে বের হয়। বাহনে পা রাখে। আর মুখে বলে: লাব্বাইক! তখন আসমান থেকে একজন ঘোষক ঘোষণা দেয়: লা লাব্বাইক ওয়া লা সা’দাইক তথা তোমার লাব্বাইক মকবুল নয়। তোমার আসবাব হারাম। তোমার ভরণ-পোষণের ব্যয় হারাম। তোমার হজও মকবুল নয়। (মু’জামে আওসাত, হাদিস নং-৫২২৮)

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত