প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিশ্বকাপ না জিতলেও তো জীবন চলে যাবে!

স্পোর্টস ডেস্ক : বিশ্বকাপ শুরু হচ্ছে আর দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটারদের ওপর দারুণ এক মানসিক চাপ বাড়ছে না, এটা যেন কোনোভাবেই সম্ভব নয়। বিশ্বকাপ এলেই আলোচনার তুঙ্গে, দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রতিটি বিশ্বকাপেই দুর্দান্ত একটি দল নিয়ে আসবে আর সবাইকে হতাশ করে দিয়ে বিদায় নেবে তারা সর্বোচ্চ সেমিফাইনাল থেকে। এখনও পর্যন্ত একটি বিশ্বকাপেরও ফাইনাল খেলা হয়নি প্রোটিয়াদের।

এবারও অন্য যে কোনো দলের চেয়ে সবচেয়ে ভারসাম্যপূর্ণ একটি দল নিয়ে বিশ্বকাপ খেলতে ইংল্যান্ডে পা রেখেছে প্রোটিয়ারা। যেমন শক্তিশালী বোলিং, তেমন শক্তিশালী ব্যাটিং, মাঠে প্রোটিয়া ফিল্ডারদের ক্ষিপ্রতা- বিশ্বকাপ জয় করার জন্য হেন কোনো রসদ নেই, যা দক্ষিণ আফ্রিকার ঝুলিতে জমা নেই।

তবুও তারা প্রচÐ চাপে। সেটা একটি কারণেই, ‘চোকার্স’। বিশ্বকাপ এলেই কেন যেন চোকার্স অপবাদটা মাথাছাড়া দিয়ে ওঠে দক্ষিণ আফ্রিকার জন্য এবং সেই অপবাদ তাড়া করতে গিয়েই প্রোটিয়ারা শেষ পর্যন্ত খেই হারিয়ে ফেলে।

ফ্যাফ ডু প্লেসির নেতৃত্বে শুরু হচ্ছে প্রোটিয়াদের বিশ্বকাপ অভিযান। বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচেই স্বাগতিক ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা। তার আগে সেই পুরনো ইতিহাস উঠে এলো প্রোটিয়া অধিনায়ক ফ্যাফ ডু প্লেসির সামনে। গত আড়াই দশকে যে প্রশ্নের সমাধান কোনো প্রোটিয়া অধিনায়ক করতে পারেননি, সে প্রসঙ্গটা আবারও তোলা হলো ডু প্লেসির কাছে।

কেপলার ওয়েসেলস, হ্যান্সি ক্রোনিয়ে, শন পোলক, গ্রায়েম স্মিথ, এবি ডি ভিলিয়ার্সরা যেখানে ব্যর্থ হলেন সেখানে কি সফল হতে পারবেন ফ্যাফ ডু প্লেসি? যদিও শুধু দক্ষিণ আফ্রিকাই নয়, অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, ভারতও এবারের বিশ্বকাপ জয়ের অন্যতম দাবিদার।

যেভাবেই হোক জিততে চাই’- টাইপের মানসিকতা দিয়ে এর আগে সব সময়ই ব্যর্থ ছিল প্রোটিয়ারা। অন্য যে কারো চেয়ে ডু প্লেসি সেটা আরও বেশি জানেন। সে কারণেই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে প্রোটিয়া অধিনায়ক ডু প্লেসি বলেন, ‘ক্রিকেট আমাদের জীবনের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে রয়েছে। তবে এটাই জীবনের সব কিছু নয়। আমি অবশ্যই ক্রিকেট ম্যাচ কিংবা শিরোপা জিততে চাইবো। তবে, আমি চাইবো না সব কিছু সরিয়ে দিয়ে জিততে।

দলের অবস্থা বর্ণনা করতে গিয়ে ডু প্লেসি বলেন, একটি দল হিসেবে আমরা অবশ্যই জিততে চাইবো। এটাই তো সবার চাওয়া। ৫ বছর আগেও এভাবে হয়তো কেউ আমাকে বলেনি। সুতরাং, আমরা চাপ নিতে চাই না। আশা করি এই চিন্তাটা দলের অন্যদের ওপরও চাপ তৈরি করে না। তাদেরকে অনেক রিল্যাক্স রাখে।

বিশ্বকাপ জিততে না পারলে যে সব কিছু শেষ হয়ে যাবে তা নয়। ডু প্লেসি জানিয়ে দিলেন, তারা বিশ্বকাপেই জিততে চাইবে। তবে, জিততে না পারলেও যে জীবন থমকে যাবে তা নয়। তিনি বলেন, ‘অবশ্যই সবচেয়ে বাজে চিত্র দাঁড়াবে যে, আমরা হয়তো জিততে পারিনি, এই তো। জীবন তো আর থমকে থাকবে না। এগিয়ে যাবে।’

খেলোয়াড়দের ওপরও কোনো চাপ সৃষ্টি করতে চান না ডু প্লেসি। তিনি বলেন, যদি খেলোয়াড়রা ফ্রি থাকে এবং নিজেদের সেরাটা নিয়ে হাজির হতে পারে মাঠে, তাহলে সেটাই হবে সেরা এবং আমরা এটার দিকেই তাকিয়ে আছি। – জাগোনিউজ

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত