প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিশ্বকাপ ক্রিকেট-২০১৯, আর বাকি ০২ দিন
মূল লড়াইয়ে নামার আগে আজ ভারতের বিরুদ্ধে গা গরমের ম্যাচ মাশরাফিদের

আক্তারুজ্জামান : ঘড়ির কাঁটার গতিবেগ যেন একটু একটু করে কমে আসছে। কমে আসছে সময়ের দৈর্ঘ্যও। অপেক্ষার শেষ সময়টা ফুরোতেই চাচ্ছে না। কমতে কমতে বিশ্বকাপ ক্রিকেটের দূরত্ব এসে ঠেকেছে আর ২দিনে। ইতিমধ্যে শেষ হতে চলেছে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচগুলো। প্রস্তুতি ম্যাচের শেষ দিন আজ। শেষ ম্যাচে কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেন মাঠে নামবে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ সময় আজ বিকাল সাড়ে ৩টায় ভারতের বিরুদ্ধে গা গরমের ম্যাচ খেলতে নামবে মাশরাফি বাহিনী।

বৃষ্টি বাগড়ায় প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে না পারায় আজ একটু গা গরমের জন্য মুখিয়ে আছেন মাশরাফি, তামিম, মুশফিক ও সাকিবরা। পাকিস্তানকে মোকাবেলা করতে না পেরে আজ ভারতের বিরুদ্ধে নিজেদের পুরোটা দেওয়ার আশায় বসে আছে টাইগাররা।
৪৬ দিনের ক্রিকেট মহাযজ্ঞ মাঠে নামার আগে সব দলই নিজেদের ঝালাই করে নিয়েছে। ছোট দলগুলো দেখিয়েছে চমক। বড় দলগুলো হঠাৎ খেই হারিয়েছে, কেউবা আবার দাপট দেখিয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশ দলের সেই সুযোগটায় বাধ সেজেছিল বৃষ্টি। ম্যাচটা পরিত্যক্ত হওয়ার পর প্রস্তুতি নিতে না পারার আক্ষেপটা শোনা গেলো জাতীয় দলের ক্রিকেটার সাব্বির রহমানের কণ্ঠে।

‘প্রস্তুতিতে আমাদের কোন ঘাটতি নেই। কিন্তু প্রতিযোগিতামূলক কোন ম্যাচে মাঠে নামলেই প্রস্তুতির নমুনাটা সামনে আসে। কিন্তু সেটা আজ কাজে লাগাতে পারলাম না।’ তবে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা যে বিশ্বকাপের জন্য তৈরি আছে সেটা বোঝা গেলো অন্যভাবে।
তামিম জানালেন নিজের বিশ্ব একাদশ। মোসাদ্দেক তৈরি হচ্ছেন চ্যালেঞ্জ নিতে। মিরাজের লেগ স্পিনারের ঘাটতি পূরণের চেষ্টা। সৌম্য ও লিটনের তীব্র প্রতি›দ্ব›দ্বী মনোভাব। নিজেকে ছাপিয়ে যাওয়ার লড়াইয়ে সাকিব এবং নীরবে আগুনে উত্তাপ বাড়াচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ। আর গুরু স্টিভ রোডস আগুনে ঘি ঢালতে ব্যস্ত। দলকে আন্ডারডগ রাখছেন, পাশাপাশি সাকিব-মাশরাফি অধিনায়কত্বে তুলনামূলক বিচার-বিশ্লেষণ। ইংলিশ কোচ হিসেবে ইংলিশ কন্ডিশনে শিষ্যদের নিয়ে গভীর প্রস্তুতি।

মাশরাফির অধিনায়কত্ব বেশ সতর্ক অবস্থানে আছে সবগুলো দল। কেননা তিনিই সবচেয়ে অভিজ্ঞ ও বয়স্ক অধিনায়ক। পাশাপাশি বাংলাদেশের হয়ে সবচেয়ে সফল দলনেতাও তিনি। ডিপেন্ডিং মুশফিক আর শীর্ষে থাকা সাকিবে ভর করে ভালো কিছুর আশা করতেই পারেন ক্যাপ্টেন ম্যাশ। আর ব্রিটেনের ভূমি মানেই পেসারদের স্বর্গরাজ্য। সে রাজ্যে রাজত্ব করার দারুণ সুযোগ আছে রুবেল ও মুস্তাফিজের। পাশাপাশি দায়িত্ব ভাগ করে নেওয়ার সুযোগটাও লুফে নিতে পারেন আবু জায়েদ রাহী কিংবা স্বয়ং অধিনায়ক নিজেই।

অলরাউন্ডারে সমৃদ্ধ না হলেও ৪জন নির্ভরশীল তারকা আছে বাংলাদেশ দলে। সাকিব আল হাসানের সঙ্গে মেহেদি হাসান মিরাজ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দীন। মূল একাদশে সাকিব-মিরাজ নিশ্চিত থাকলেও জায়গার জন্য লড়াই করতে হবে মোসাদ্দেক ও সাব্বিরকে। কেননা পার্ট টাইম বোলিং করার অভিজ্ঞতার পাশাপাশি লেজের দিকে দারুণ ব্যাটিং করার ক্ষমতাও আছে দুজনের। কিন্তু সমস্যাটা অন্য জায়গায় সাইফউদ্দীনকে নিয়ে। বারবার ভালো খেলেও হয়তো সবগুলো ম্যাচের একাদশে নাও পেতে পারেন। তবে একাদশ যেমনই হোক স্মরণীয় বিশ্বকাপের প্রত্যাশায় দেশের আপামর ক্রিকেট ভক্ত জনতা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত