প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এখনও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের স্বীকৃতি দেয়নি যুক্তরাষ্ট্র

রেজাউল আহসান : বাংলাদেশের ভাষা শহিদ দিবস জাতিসংঘের স্বীকৃতি পেয়েছে ১৯ বছর আগে।  তবে ইউনেস্কো ঘোষিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে এখনও স্বীকৃতি দেয়নি যুক্তরাষ্ট্র। এ নিয়ে দফায় দফায় চেষ্টা করেছেন প্রতিনিধি পরিষদের আইন প্রণেতা গ্রেস মেং। তবে ৩ বার তার প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।  এবার চতুর্থবারের মতো আরও তিন আইন প্রণেতাকে সঙ্গে নিয়ে দিবসটির স্বীকৃতি নিশ্চিতে যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে (প্রতিনিধি পরিষদ) প্রস্তাব উত্থাপন করেছেন গ্রেস মেং। ওই প্রস্তাবে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের লক্ষ্য ও আদর্শকে সমর্থন জানানো হয়েছে। পাশাপাশি যথাযথ অনুষ্ঠান ও কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি পালনের জন্য জনগণকে উৎসাহিত করা হয়েছে। বাংলা ট্রিবিউন।

ভাষার বৈচিত্র্য ও বহুভাষিক চর্চায় আরও সচেতনতার জন্য ১৯৯৯ সালে জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সাংস্কৃতিক সংস্থা ইউনেস্কো একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের স্বীকৃতি প্রদান করে।

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি গ্রেস মেং-সহ প্রতিনিধি পরিষদের সদস্য জিম ম্যাকগোভার্ন, রাউল গ্রিজালভা ও ডেব হালান্ড আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে স্বীকৃতি দিতে পার্লামেন্টে প্রস্তাব উত্থাপন করেন।  প্রস্তাবে বলা হয়, ‘গত তিন প্রজন্ম ধরে দুই শতাধিক ভাষা বিলুপ্ত হয়ে গেছে।  আরও ২,২৭৯টি ভাষা ‘বিপন্ন’ অবস্থায় আছে।’ উত্থাপিত প্রস্তাবে শিক্ষার মাধ্যমে ভাষা ও সংস্কৃতিগত ঐতিহ্য সংরক্ষণের গুরুত্বের বিষয়টি সামনে আনা হয়।

প্রতিনিধি পরিষদের সদস্য মেং ১১৫তম, ১১৪তম ও ১১৩তম কংগ্রেস অধিবেশনে এ একই প্রস্তাব উত্থাপন করেছিলেন। তিন বারই এ সংক্রান্ত প্রস্তাব হাউস কমিটি অন ওভারসাইট অ্যান্ড গভর্নমেন্ট রিফর্ম-এ পাঠানোর জন্য সুপারিশ পেয়েছিল। তবে কংগ্রেস অধিবেশনগুলো শেষ হওয়া পর্যন্ত সেখানেই তা আটকে থাকে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত