প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তরুণ প্রাণে দোলা দিয়ে এলো বসন্ত

জিয়ারুল হক : উদাসী হাওয়ার বসন্তের প্রথম দিন আজ। পাগল হাওয়ার ছোঁয়ায় দোলা লেগেছে প্রকৃতিতে। গাছে গাছে শিমুল আর পলাশের মেলা। আবহমান কাল ধরে বসন্ত ঋতু জায়গা করে নিয়েছে বাঙালির মনে। বসন্তের রূপ এখন পোশাকে আর নানা আয়োজনেও। পহেলা ফালগুনে কোকিলের কুহুতান দোলা লাগিয়েছে তরুণ প্রাণে।

প্রকৃতিতে বইছে বসন্তের হাওয়া। বাঙালির জীবনে বসন্তের উপস্থিতি সেই অনাদিকাল থেকে। কাব্যে, গল্পে, গানে বসন্ত ঠাঁই করে নিয়েছে আপন মহিমায়। বসন্ত মানেই সজীব প্রকৃতিতে বর্ণিল রঙের সমাহার। বসন্ত মানেই ফুল আর কোকিলের যুগলবন্দি।

ফাগুনের হাত ধরেই ঋতুরাজ বসন্তের আগমন। শীতের খোলসে থাকা বসন্তের ফুল ফুটতে শুরু করে এই ফালগুনেই। বসন্তের আগমনে প্রকৃতির সাথে তরুণ হৃদয়েও লাগে দোলা। তরুণীরা বাসন্তী রঙের শাড়ি পরে প্রকৃতির কোলে নিজেকে সপে দিতে চাইবে। অপরদিকে বসন্তের উদাস হাওয়ায় তরুণেরা নিজেকে প্রকাশ করার মধ্য দিয়ে প্রকৃতির মন কাড়তে চাইবে। বসন্ত যেন মানব মন আর প্রকৃতির রূপ প্রকাশের লীলা-খেলা।

বসন্তকে সামনে রেখে গ্রাম বাংলায় মেলা, সার্কাসসহ নানা বাঙালি আয়োজনের সমারোহ থাকবে। ভালোবাসার মানুষেরা মন রাঙাবে বাসন্তি রঙে। শীতের সঙ্গে চলে বসন্তকালের পিঠা উৎসব।

‘মধুর বসন্ত এসেছে, মধুর মিলন ঘটাতে’ কবিগুরুর এই গানের মতো বসন্ত যেন মানুষে মানুষে মেলবন্ধন দৃঢ় করতে পারে, মধুর স¤প্রীতি ও সৌহার্দ্য বাড়াতে পারে-এমনই প্রত্যাশা

শীতের জীর্ণতা পেছনে রেখে এসেছে বসন্ত। ফালগুনের সবুজ বুকে লেগেছে বহুবর্ণের ছাট। বইছে প্রাণ উতলা করা দক্ষিণা হাওয়া। ঋতুরাজের আগমনী বার্তা জানিয়ে ফুটেছে পলাশ। টিয়া-মৌটুসির খুনসুটি বলে দেয়, এসেছে ফালগুন।
বসন্তে ফুটেছে শিমুল। শীতে ঝরে পড়েছে পাতা। ন্যাড়া গাছের রিক্ততা দূর করে রক্তরাঙা শিমুল কুঁড়ি এসেছে ফালগুনে। পাখির ঝাঁকও যেন মুগ্ধ এই সৌন্দর্যে।

মৃদু-মন্দ বাতাসে ভাসছে মাধবী লতার সুবাস। নাগেশ্বর, অশোক পাঁপড়িতে মাতাল ভ্রমর। কাঞ্চন, নীলমনি, চুঁইয়ে পড়ছে রঙ। নগর সভ্যতা সবুজ বনানী কেড়ে নিলেও টিকে থাকা গাছগুলো যেন বসন্তের সৌন্দর্য নিয়ে উজার করছে নিজেদের। এ ঋতুতে বিবর্ণ প্রকৃতি, ফিরে পায় প্রাণ। হাজার বছরের ঐতিহ্য আর বসন্তবরণের আয়োজনে তাই তৈরি বাঙালি মন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত