প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নির্বাচিত হয়ে সংসদে এলাকার মানুষের কথা বলবেন, সেটাই ছিলো নির্বাচনে অংশগ্রহণের অঙ্গীকার : বিভুরঞ্জন সরকার

সৌরভ নূর : আমাদের নতুন সময় পত্রিকার যুগ্ম সম্পাদক বিভুরঞ্জন সরকার বলেছেন, বিএনপি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছে এবং ঐক্যফ্রন্ট থেকে মোট আটজন সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়াও সব আসনেই তারা কিছু না কিছু ভোট পেয়েছেন। মানুষ তাদের ভোট দিয়েছেন বা ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন সংসদে যাবার জন্য সংসদে তাদের হয়ে কথা বলার জন্য। ভোটের আগে তারা কিন্তু জনগণকে বলেননি সরকার গঠন করতে না পারলে আমরা সংসদে যাবো না। নির্বাচিত হয়ে সংসদে যাবেন, এলাকার মানুষের কথা বলবেন, সরকার গঠন করলে জনগণের জন্য কাজ করবেন আর বিরোধী দলে গেলে সরকারের সমালোচনা করবেন, ভালো-মন্দ ধরিয়ে দিবেন এটাই তো ছিলো নির্বাচনে অংশগ্রহণের অঙ্গীকার। এখন বিএনপি নিজেদের বিপর্যয়ের কারণে সংসদে যেতে চাচ্ছে না। এটা জনগণের কাছে করা অঙ্গীকার ভঙ্গের শামিল। ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ টিবিএন টুয়েন্টিফোর নামের ইউটিউবভিত্তিক একটি চ্যানেলের টকশো আয়োজনে বিভুরঞ্জন সরকার এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, বিএনপি অভিযোগ করে বলছে, ৩০ ডিসেম্বর প্রহসনের নির্বাচন হয়েছে । কিন্তু তারা শুধু বলছে, কোনো প্রমাণ এখনো দিতে পারেনি। নির্বাচনের পর একমাস অতিক্রান্ত হয়েছে, বিএনপি না প্রমাণ নিয়ে আদালতে যেতে পেরেছে, না পেরেছে জনগণকে সাথে নিয়ে একটি কার্যকরী আন্দোলন গড়ে তুলতে। নির্বাচনে কিছু ত্রুটি-অনিয়ম হয়েছে, হয়নি একথা বলা যাবে না।

তার মানে এই নয় যে, দেশের মানুষ এই নির্বাচনকে প্রত্যাখ্যান করেছে। ঐক্যফ্রন্ট সংখাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে পারেনি, ক্ষমতায় যেতে পারেনি দেখেই এই নির্বাচনকে আপনি মানবেন না, এই সরকার অবৈধ বলবেন-এটা কিন্তু দেশের মানুষ মেনে নিচ্ছে না। আওয়ামী লীগের ক্ষমতায় থাকা এবং পুনর্নিবাচিত হওয়া দেশের মানুষ চেয়েছে বলেই নির্বাচনের পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। মানুষ বিএনপিকে ক্ষমতায় দেখতে চাইলে পরিস্থিতি ভিন্ন হতো। মানুষের ভোটাধিকার যদি কেড়ে নেয়া হতো তাহলে তারাই প্রতিবাদ করতো। বরং দেশের মানুষ এখন নতুন মন্ত্রিসভার দিকে নজর দিচ্ছে, পরিবর্তনের প্রত্যাশা করছে। সরকার যদি দুর্নীতি প্রতিরোধের  চেষ্টায় আন্তরিক যা সফল হয় হলে তাহলে মানুষের পরিপূর্ণ আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হবেন বলে মনে করছেন এই সিনিয়র সাংবাদিক।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত