প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভিত্তি ছাড়া গ্রেফতার কাম্য নয়, অধীনস্ত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান শিপা হাফিজার

মারুফুল আলম : আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক শীপা হাফিজা বলেছেন, পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বিশেষ করে আইজিপির কাছে বিশেষ আবেদন, যে মামলাগুলোর ভিত্তি নাই সেগুলো খুঁজে বের করা উচিত। বুধবার ডিবিসি নিউজ’র রাজকাহন অনুষ্ঠানে তিনি আরো বলেন, ভিত্তি ছাড়া কাউকে গ্রেফতার করা হলে, অধীনস্ত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অ্যাকশন নেয়া দরকার। সাধারণ মানুষের ভোগান্তি কমানো খুবই জরুরী।

বিচার বিভাগকে তরান্বিত করার ব্যাপারে সরকারের ঘোষণাকে শীপা হাফিজা একটি আশার জায়গা বলে মনে করেন। তিনি বলেন, আদালতে ভীড় বেড়ে গেছে। এতে নতুন সরকার হস্তক্ষেপ করলে একটি উদাহরণ সৃষ্টি হবে। বিশেষ করে প্রতিব›দ্বী এবং বৃদ্ধদের বিরুদ্ধে মামলার ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া দরকার। শীপা হাফিজা বলেন, এদের ব্যাপারে আমি হলে তো রাতের মধ্যেই একটি ব্যবস্থা করে দিতাম।
শীপা হাফিজা আরো বলেন, মামলার কোনো কারন থাকলে ভিন্ন কথা, তবে পত্র পত্রিকায় বা মিডিয়াতে গায়েবী মামলা নিয়ে যেসব খবর পাই, সেরকম গায়েবী মামলা হয়ে থাকলে, সেটি খুবই অন্যায়। বিগত বছরের শেষের দিকে অনেক ধরপাকড় হয়েছে, এটি সত্য। গায়েবী মামলায় যে কাউকে দোষী সাব্যস্ত করার পথ থেকে যায়।

মামলার শিকার হওয়া অনেকে জানতেও পারে না যে, তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। জনগণ এবং বিরোধী দলের রাজনীতিতে যারা জড়িত তারাই সাধারণত এ ধরণের মামলার বেশি শিকার হচ্ছে, এ বিষয়ে তিনি বলেন, গ্রুপ অব পিপল এর নামে যখন মামলা হয়, তখন প্রয়োজনমতো যাকে ইচ্ছা তাকে শাস্তি দেয়ার সুযোগ থাকে। এ রকম যদি সত্যিই হয়ে থাকে, তাহলে ভীতিকর একটি পরিস্থিত চলছে।

শীপা হাফিজা বলেন, সম্প্রতি সোনালী ব্যাংকের কর্মকর্তাকে নিয়ে ঘটনায় দেখা গেছে, যার নামে মামলা হয়েছে সে শাস্তি পায়নি, শাস্তি পেয়েছেন অন্য আরেকজন। দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান দোষ স্বীকার করে বললেন, ভুল হয়ে গেছে। ভুল স্বীকার করা ভালো কাজ, তবে এ ধরণের ভুলের জন্য শুধু ভুল স্বীকার করা যথেষ্ট নয়। এটি সত্যিই দুর্ভাগ্যজনক। যে মানুষটির জীবনের এবং তার পরিবারের এতবড় ক্ষতি করা হলো তার একটা বিহীত করা উচিত।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত