প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হাথুরু সিংহে ক্ষমতা কেড়ে নেওয়া হলো

স্পোর্টস ডেস্ক: বাংলাদেশ দলের হেড কোচ থাকা অবস্থায় দলের নির্বাচক ছিলেন লঙ্কান কোচ চন্দিকা হাথুরুসিংহে। নিজের ইচ্ছেমতো দলে খেলোয়াড় আনা, বাদ দেওয়ারও অভিযোগ ছিল তার বিরুদ্ধে। এরপর তিনি বাংলাদেশ ছেড়ে চলে যান নিজ দেশ শ্রীলঙ্কায়। সেখানেও নিজের ইচ্ছেমতো খেলোয়াড় নির্বাচন করেছেন হাথুরু। সবশেষ ব্রিসবেনে লঙ্কানদের পরাজয়ে শ্রীলঙ্কার ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে ক্ষমতা খর্ব করা হয়েছে হাথুরুসিংহের।

শ্রীলঙ্কা জাতীয় দলের কোচের সঙ্গে নির্বাচক কমিটিতেও রাখা হয়েছিল হাথুরুকে। যেমনটা তিনি ছিলেন বাংলাদেশে। কিন্তু বাংলাদেশে সাফল্য পেলেও নিজ দেশ শ্রীলঙ্কার হয়ে তেমন কোনো সাফল্য নেই হাথুরুর।

যার ফলশ্রুতিতে দল নির্বাচনের দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দেয়া হয়েছে এই কোচকে। এবার থেকে দল নির্বাচনে আর সরাসরি হস্তক্ষেপ করার সুযোগ পাচ্ছেন না তিনি।

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘জাতীয় নির্বাচক কমিটির সঙ্গে আলোচনা করে কোনো সফরে দল নির্বাচনের কাজটা করবেন টিম ম্যানেজার আর অধিনায়ক। ম্যানেজার, অধিনায়ক এবং নির্বাচক কমিটির সদস্যদের মত নিয়েই বেশিরভাগ সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। শ্রীলঙ্কার ক্রীড়া আইন কোনোভাবেই কোচকে নির্বাচকের ভূমিকায় কাজ করতে অনুমতি দেয় না।’

হাথুরুর অধীনে ৪২টি আন্তর্জাতিক ম্যাচের মধ্যে লঙ্কানরা জিতেছে ১৪টি, হেরেছে ২৪টি। কার্যকর ও স্বচ্ছ নির্বাচন প্রক্রিয়া গঠনে ব্যর্থ হাথুরুর কোচ হওয়ার প্রধান শর্তই ছিল নির্বাচক হিসেবে স্বাধীনতা দেওয়া। তবে, এই ক্ষমতা কেড়ে নেওয়ায় হাথুরুসিংহে পরবর্তীতে কী করেন সেটাই এখন দেখার বিষয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত