প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

মেলানিয়ার জ্যাকেট নিয়ে বিতর্ক

মাহাদী আহমেদ : পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন শরণার্থী শিশুদের প্রতি সহমর্মী নন বলে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পের ক্ষোভের আগুন নেভাতে প্রেসিডেন্টকে শুধু ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি পরিবর্তনের কথাই বলেননি, সবাইকে চমকে দিয়ে সরাসরি ছুটে গিয়েছেন টেক্সাসে মেক্সিকো সীমান্তে এক অভিবাসী আটক কেন্দ্র পরিদর্শনে।
তা সত্ত্বেও সমালোচনা এড়াতে পারেননি ফার্স্ট লেডি।

এই সমালোচনার নেপথ্যে ৩৯ ডলারের জলপাই-রঙয়ের একটি জ্যাকেট। যার পেছনে সাদা হরফে বড় বড় করে লেখা, ‘আই রিয়্যালি ডোন্ট কেয়ার, ডু ইউ?’ (অর্থাৎ আমি আসলেই পরোয়া করি না, আপনি?) সেটি পরেই মেলানিয়া এয়ার ফোর্স ভিআইপি বিমানে উঠেছিলেন। তবে টেক্সাসের ম্যাকালেনের ওই কেন্দ্রে যাওয়ার সময়ে জ্যাকেটটি পরেননি। তাতে অবশ্য ক্ষোভ থামেনি।

শুক্রবার অভিবাসী আটক কেন্দ্রের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসে মেলানিয়া বলেন, ‘এই বাচ্চাদের দ্রুত পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিতে আমি কী করতে পারি?’ কিন্তু যিনি পরিবার-বিচ্ছিন্ন শরণার্থী শিশুদের যন্ত্রণা বুঝতে এত কিছু করছেন, তিনি কীভাবে এ ধরনের কথা লেখা জ্যাকেট গায়ে চাপান? এই প্রশ্নে উত্তাল মার্কিন সংবাদমাধ্যম।

বিতর্ক থামাতে তড়িঘড়ি স্ত্রী মেলানিয়ার পাশে দাঁড়িয়েছেন ট্রাম্প। সংবাদমাধ্যমকেই এক হাত নিয়ে তিনি টুইট করেছেন, ‘আই রিয়্যালি ডোন্ট কেয়ার, ডু ইউ? ভুয়া খবর যারা ছড়ায়, মেলানিয়ার জ্যাকেটের পেছনের লেখাটা তাদের জন্য। মেলানিয়া জানে তারা কতটা অসৎ। আর তাই তার তাতে কিছু যায় আসে না!’
প্রেসিডেন্ট প্রতিবারের মতো সংবাদমাধ্যমের ঘাড়ে সব দায় চাপিয়ে বিতর্কে ইতি টানতে চেয়েছেন। কিন্তু ঘটনা হলো, মেলানিয়া মেরিল্যান্ড থেকে টেক্সাসে যাওয়ার জন্য বিমানে ওঠা থেকেই জ্যাকেটটি গায়ে ছিল। তখন তার যে সব ছবি তোলা হয়, মুহূর্তে তা ভাইরাল হয়ে যায়।

আপত্তি উঠতেই মেলানিয়ার মুখপাত্র স্টেফানি গ্রিশাম বলেন, ‘ওটা ¯্রফে একটা জ্যাকেট। ওর মধ্যে কোনও গোপন বার্তা দেয়া হয়নি। ফার্স্ট লেডির টেক্সাস সফরের পরে আশা করি সংবাদমাধ্যম মেলানিয়ার ওয়ার্ডরোব নিয়ে মাথা ঘামাবে না।’

মজার কথা, মেলানিয়ার মুখপাত্র এই মন্তব্য করলেও সম্পূর্ণ উল্টো পথে হেঁটে তার কিছুক্ষণের মধ্যে টুইটে ট্রাম্প বলেছেন, মেলানিয়া তার জ্যাকেটের মাধ্যমে ভুয়া সংবাদমাধ্যমকেই বার্তা দিয়েছেন! ফেরার পথে হোয়াইট হাউসে ঢোকার সময়ে ফের মেলানিয়ার গায়ে ছিল সেই জ্যাকেট। শুধু সংবাদমাধ্যম নয়, জ্যাকেট দেখে অবাক হয়েছেন অভিবাসন সংক্রান্ত আইনজীবী ডেভিড লিওপোল্ড।

তিনি প্রথমে ভেবেছিলেন, কেউ মজা করে ও সব বানিয়েছে! কিন্তু যখন জানলেন, ফার্স্ট লেডি সত্যিই এমন বাক্য লেখা জ্যাকেট পরেছিলেন, তিনি স্তম্ভিত। ডেভিড বলেন, ‘এক দিকে সন্তানহারা সেই সব মা এবং অন্য দিকে বাবা-মায়ের জন্য অপেক্ষায় থাকা শিশুদের কাছে জ্যাকেটের কথাগুলো তীব্র বিদ্রুপের সমান। কিছুতেই মেনে নেয়া যায় না। লজ্জাজনক।’

টুইটারেও জ্যাকেট নিয়ে চলছে সমালোচনা। একজন লিখেছেন, ‘ডোন্ট লেট দেম ইট কেক। গিভ ইট টু মি।’ মেলানিয়া নিজে অবশ্য এই বিতর্কে এখনও মুখ খোলেননি। আনন্দবাজার

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত