শিরোনাম

প্রকাশিত : ০২ অক্টোবর, ২০২২, ০৪:৫৪ দুপুর
আপডেট : ০২ অক্টোবর, ২০২২, ০৫:৩১ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

বাংলাদেশের ৫০ লাখ ভিডিও সরিয়েছে টিকটক 

টিকটক 

এম এম লিংকন: বাংলাদেশের প্রায় ৫০ লাখ ভিডিও সরিয়েছে সংক্ষিপ্ত ভিডিও তৈরির জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টিকটক। বৃহস্পতিবার ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজ থেকে একটি পোস্ট দিয়েছেন।

মোস্তফা জব্বার তার পোস্টে লেখেন, টিকটক কথা শুনতে শুরু করেছে। ওই পোস্টের সঙ্গে একটি স্ক্রিনশটও দিয়েছেন টেলিযোগাযোগমন্ত্রী। যাতে দেখা যায় বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে টিকটক বাংলাদেশ থেকে প্রায় ৫০ লাখ ভিডিও সরিয়েছে।

জানা যায়, গত ২৮ সেপ্টেম্বর কমিউনিটি গাইডলাইন এনফোর্সমেন্ট রিপোর্ট প্রকাশ করেছে টিকটক। সেখানে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ থেকে ৪৯ লাখ ৭৪ হাজার ৮৩৮টি ভিডিও সরানো হয়েছে।

এর মধ্যে স্বউদ্যোগী হয়ে টিকটক ৯৯ দশমিক ২ শতাংশ, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ৯৬ দশমিক ১ শতাংশ এবং কোনো ভিউ হওয়ার আগেই সরানো হয়েছে ৯৬ দশমিক ৩ শতাংশ ভিডিও।

প্রসঙ্গত, ভিডিও সরিয়ে নেয়ার শীর্ষ ৩০টি দেশের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ষষ্ঠ। শীর্ষ পাঁচটি দেশের তালিকায় রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, পাকিস্তান, ফিলিপাইন ও ইন্দোনেশিয়া।

টিকটকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে , কমিউনিটি গাইডলাইন, পরিষেবার শর্ত লঙ্ঘন করে এমন কনটেন্ট এবং অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে টিকটক নিয়মিত ব্যবস্থা গ্রহণ করে। এ ছাড়া ব্যবহারকারীদের প্রতি দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে তারা এ ধরনের প্রতিবেদন প্রকাশ করে থাকে।

সঠিক উপায়ে ও আইনগতভাবে কোনো অনুরোধ করা হলে তাকে সম্মান করে টিকটক। তবে প্রত্যেকটি অনুরোধকেই পর্যালোচনা (রিভিউ) এবং নিজেদের কমিউনিটি গাইডলাইন অনুযায়ী বিবেচনা করে তারা।

চলতি বছরের মে মাসে প্রকাশিত টিকটকের আরেকটি প্রতিবেদনে জানা যায়, গত বছরের জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশ সরকারের কাছ থেকে ৫টি অনুরোধ পেয়েছিল টিকটক। এর মধ্যে ছিল ১৬টি অ্যাকাউন্ট। যার মধ্যে টিকটকের গাইডলাইন ভঙ্গের অভিযোগে ছয়টি অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়। এ ছাড়া বাকি ১০টি অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। বাংলাদেশ সরকারের অনুরোধে টিকটকের ভিডিও সরিয়ে নেওয়ার হার ৩৮ শতাংশ।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়