শিরোনাম

প্রকাশিত : ৩১ অক্টোবর, ২০২৩, ০৬:৫৫ বিকাল
আপডেট : ৩১ অক্টোবর, ২০২৩, ০৬:৫৫ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

যৌনকর্মীদের অধিকার সুরক্ষা ও পুনর্বাসনের সুপারিশ করবে মানবাধিকার কমিশন

মাজহারুল মিচেল: [২] রাজধানীর জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সভাকক্ষে মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) দুপুরে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন এবং নারীপক্ষের যৌথ মতবিনিময় সভায় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ একথা বলেন।

[৩] তিনি বলেন, যৌনকর্মীদের ক্ষেত্রে সামাজিক নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন ও তাদেরকে এই পেশা থেকে বেরিয়ে এসে সমাজের মূল স্রোতধারায় অন্তর্ভুক্ত করার লক্ষ্যে তাদেরকে কারিগরি প্রশিক্ষণ দিয়ে পুনর্বাসনের প্রচেষ্টা নেয়ার জন্য সরকারের নিকট সুপারিশ করা হবে। বিশেষ করে তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র প্রাপ্তি ও বয়স্ক যৌনকর্মীদের বয়স্ক ভাতার আওতায় নিয়ে আসার লক্ষ্যে কাজ করবো আমরা। 

[৪] কমিশনের চেয়ারম্যান বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক বাস্তবতায় যৌনকর্মীদের অবস্থান তুলে ধরেন। 

[৫] তাদের সমস্যার সামগ্রিক প্রেক্ষাপট উপস্থাপনপূর্বক সমস্যা থেকে উত্তরণ ও পুনর্বাসন সংক্রান্ত বিষয়াদি আলোচনা করেন। পাশাপাশি ভাসমান যৌনকর্মীদের সমস্যাগুলোর প্রকৃতি অনুসন্ধানে জোর দেন তিনি। 

[৬] এছাড়াও তিনি যৌনকর্মীদের শক্তিশালী ডাটাবেজ এবং গবেষণানির্ভর সমাধানের প্রত্যাশা করেন। 

[৭] সভায় কমিশনের সার্বক্ষণিক সদস্য মো. সেলিম রেজা যৌনকর্মীদের জ্ঞান ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষতা উন্নয়নের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।    

[৮] কমিশনের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সভায় নারীপক্ষের প্রতিনিধিগণ যৌনকর্মীদের জন্য রাষ্ট্রীয় নাগরিক সুবিধাদি প্রাপ্তিতে সুযোগ তৈরিতে কমিশনের ভূমিকা রাখা, সরকারি বয়স্ক ভাতা প্রাপ্তিতে নীতিমালা সংশোধন করা, বিশেষ করে প্রান্তিক নারীদের বয়সসীমা কমানোর উদ্যোগ নেওয়া, যৌনকর্মীদের শিশুদের জন্ম নিবন্ধন শুধু মায়ের নামে করার ব্যবস্থা করার লক্ষ্যে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন রেজিস্টার জেনারেলের কার্যালয়ে মানবাধিকার কমিশন থেকে চিঠি দেওয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ সহ বিভিন্ন সুপারিশ উপস্থাপন করেন।   

[৯] সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন কমিশনের অবৈতনিক সদস্য ড. তানিয়া হক, নারীপক্ষের সভানেত্রী ডা. তাসনিম আজিম, সদস্য মাহবুবা মাহমুদ, সদস্য সামিয়া আফরিন প্রমুখ। সম্পাদনা: তারিক আল বান্না

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়