শিরোনাম

প্রকাশিত : ১৩ নভেম্বর, ২০২২, ০৫:৩৭ বিকাল
আপডেট : ১৩ নভেম্বর, ২০২২, ০৫:৩৭ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

সংসদে সংরক্ষিত আসন চান ট্রান্সজেন্ডাররা

ট্রান্সজেন্ডার মানববন্ধন

খালিদ আহমেদ: জাতীয় সংসদসহ নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে হিজড়া ও ট্রান্সজেন্ডারদের প্রতিনিধিত্ব নেই। অন্যরা দায়িত্ব নিয়ে এসব মানুষের পক্ষে কথা বলেন না। আজ রোববার (১৩ নভেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধনে এবং মানববন্ধন শেষে জাতীয় প্রেস ক্লাবে আলোচনা সভায় এসব কথা বলেছেন হিজড়া, ট্রান্সজেন্ডাররা। জাতীয় সংসদে হিজড়া ও ট্রান্সজেন্ডারদের জন্য সংরক্ষিত আসনের দাবিতে এ মানববন্ধন হয়।

তারা বলছেন, হিজড়া, ট্রান্সজেন্ডার, রূপান্তরিত নারী বা পুরুষের বঞ্চনা শুরু হয় পরিবার থেকে। শিক্ষা, চাকরি, বাসস্থান, রাজনৈতিক অধিকার—সব ক্ষেত্রেই বৈষম্যের শিকার হতে হয়।হিজড়া জনগোষ্ঠীর মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করা সুস্থ জীবন এ মানববন্ধন ও আলোচনা সভার আয়োজন করে। মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের সহায়তায় গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডার অর্থায়নে আয়োজিত মানববন্ধন ও আলোচনা সভায় ঢাকা এবং ঢাকার বাইরে থেকে হিজড়া, ট্রান্সজেন্ডার মানুষদের পরিচালিত বিভিন্ন সংস্থার নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে সুস্থ জীবনের চেয়ারম্যান পার্বতী আহমেদ বলেন, রোহিঙ্গারা এ দেশে সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছে। অথচ হিজড়া, ট্রান্সজেন্ডারদের বিভিন্ন সুবিধা পেতে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। অথচ আমরা ভোট দেই। নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে আমাদের অংশগ্রহণ না থাকলে আমাদের কথা কেউ বলবে না। সংসদে আমাদের কথা আমাদেরই বলতে হবে।

সম্পর্কের নয়া সেতুর সভাপতি জয়া সিকদার বলেন, ২০১৩ সালে সরকার হিজড়া লিঙ্গ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। এতে হিজড়া সংস্কৃতির সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের বাইরে ট্রান্সজেন্ডারসহ অন্য লিঙ্গ বৈচিত্র্যপূর্ণ মানুষেরা স্বীকৃতি থেকে বাদ পড়ে গেছে। সরকারকে এ দিকটাও ভাবতে হবে। আরিফা ইয়াসমীন ময়ূরী, সিলেটের মাহফুজ আলম, রাজবাড়ীর তানিশা ইয়াসমিন চৈতি, ঢাকার ইভান আহমেদ কথাসহ অনেকে আলোচনায় অংশ নেন।

কেএ/এএ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়