শিরোনাম
◈ ১৫৬ উপজেলায় ভোট আজ ◈ সংসদ সদস্য আজিমের অবস্থান জেনেছে ভারত পুলিশ ◈ বিধ্বস্ত হওয়ার আগে হেলিকপ্টারে কী করছিলেন ইরানের প্রেসিডেন্ট প্রকাশ্যে ‘শেষ’ ভিডিও ◈ সৈয়দপুর বিমানবন্দরের রানওয়েতে ফাটল, প্লেন চলাচলে বিঘ্ন ◈ ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী ও হামাস প্রধানের বিরুদ্ধে আইসিসিতে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার আবেদন ◈ নিরপেক্ষতা ক্ষুণ্ন হওয়ায় দুই ওসিকে প্রত্যাহার করলো ইসি  ◈ ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে মির্জা ফখরুলের শোক ◈ ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি প্রধানমন্ত্রীর শোক ◈ বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রীকে কঠোরভাবে বাজার তদারকির নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ◈ প্রতি বছর এপ্রিলের গরম ৪০ ডিগ্রি ছাড়াবে, বলছে রিপোর্ট

প্রকাশিত : ১৬ মে, ২০২৪, ১২:৫২ রাত
আপডেট : ১৬ মে, ২০২৪, ১২:৫২ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

কথা বলার জন্য মানুষকে শাস্তি দেওয়া যায় না, এটা অন্যায় 

ইমতিয়াজ মাহমুদ

ইমতিয়াজ মাহমুদ: তিথি সরকার কি বলেছিলেন যে ধর্ম নামক ওইসব জিনিসের অবমাননা হয়ে গেছে? ভাবখানা যেন ধর্ম নামক জিনিসগুলি খুব মানি জিনিস। তিথি সরকারের বক্তব্য বা ওর কথার কন্টেন্ট আমি জানি না, জানতে চাইও না। কেননা আমি জানি এবং এই কথাটি আপনাদের সবাইকে বলে আসছি, আজ এক দশকের উপর হয়ে গেছে যে, বাকস্বাধীনতা একটি কনটেন্ট-নিউট্রাল বা বিষয় নিরপেক্ষ ধারণা। কোনো বক্তব্যের বিষয়বস্তুর উপর মানুষ বাকস্বাধীনতা বা মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নির্ধারিত হয় না। বাকস্বাধীনতার শর্ত একটাই-আপনি অপরের ক্ষতি করতে পারেন না। ক্ষতি মানে, প্রকৃত ক্ষতি বা ক্ষতির আশু আশঙ্কা। শুদ্ধ ধর্ম অবমাননা কোনো অপরাধ হতে পারে না। তাতে কার অনুভূতিতে আঘাত লাগলো বা বিশ্বাসের জগদ্দল তোলে উঠল সেটাতে কিসসু যায় আসে না। ধর্ম অবমাননা একটি অপরাধ হতে পারে আপনি যখন তার সাথে অন্য উদ্দেশ্য মিশিয়ে দবেন, যেমন দাঙ্গা লাগানোর মতলব বা কোন মানুষকে বিপন্ন করার মতলব। যেমন আপনি যদি কোনো একটি ধর্মকে আক্রমণ করে কোন বিশেষ জনগোষ্ঠীকে উস্কে দিতে চান যাতে করে লোকে সেই ধর্মে বিশ্বাসী যারা ওদের উপর আক্রমণ করতে উদ্যত হয়, সেটা একটা অপরাধ হতে পারে। সেরকম কিছু কি তিথি সরকার করেছিলেন? 

আমার মনে হয় না। মানুষের কথা বা বক্তব্য কখন আপরাধ হিসাবে বিবেচিত হতে পারে সেটার একটা উদাহরণ হতে পারে হেফাজতে ইসলামের সাবেক আমির, ওই যে নারীকে তেঁতুলের সাথে তুলনা করতো যে মৌলানা, তার একটা বক্তৃতা। পেকুয়ায় এক সভায় ওই মৌলানা সাহেব বলেছিলেন যে নাস্তিকদেরকে কতল করা নাকি মুসলমানদের জন্যে ওয়াজিব হয়ে পড়েছে। সেই বক্তৃতার খবর কাগজেও প্রকাশিত হয়েছে সেসময়। আপনি যদি সেই মৌলানা সাহেব, তার সংগঠন ও সংগঠনের সদস্যদের উপর তার প্রভাব এসব বিবেচনা করেন, তাহলে মৌলানার সেই বক্তৃতা আসলেই অনেক মানুষের জীবনকে ঝুঁকির মুখে ফেলে দেয়। এটা অপরাধ। তিথি সরকারের পাঁচ বছরের জেল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ধর্ম বিরোধী কথাবার্তা লেখার জন্যে। এইটা অন্যায়। একটি রাষ্ট্রের দায়িত্ব হচ্ছে মানুষের বাক ও চিন্তার স্বাধীনতা নিশ্চিত করা। একজন মানুষ যখন এমন কোনো কথা বলেন যেটার বিরোধ করবে কোটি মানুষ তখন রাষ্ট্রের দায়িত্ব হচ্ছে এই ব্যক্তিটিকে রক্ষা করা, তার বাকস্বাধীনতা রক্ষা করা। রাষ্ট্র যখন উল্টো কথা বোলার জন্যে তাকে শাস্তি দিতে লেগে পরে, তাইলে প্রমাণিত হয়ে যে এই রাষ্ট্রে মানুষের বাক ও চিন্তার স্বাধীনতা নেই। আর বাক ও চিন্তার স্বাধীনতা নেই মানে হচ্ছে রাষ্ট্রটিতে গণতন্ত্র নেই, এটি একটি আধুনিক রাষ্ট্র নয়। তিথি সরকার কে আমি জানি না। জানি না কী তার রাজনৈতিক মতামত, কী তার আদর্শ উদ্দেশ্য। কিন্তু এটা আমি নিশ্চয় করে বলতে পারি যে, এই মেয়েটার সাথে অন্যায় হয়েছে। কথা বলার জন্য মানুষকে শাস্তি দেওয়া যায় না, এটা অন্যায়। ১৪-৫-২৪। ফেসবুক থেকে 

 
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়