শিরোনাম
◈ প্রকাশিত হলো রাষ্ট্রপতির ‘এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ’ বইয়ের ইংরেজি সংস্করণ   ◈ বিএনপি নেতাদের জামিন বিষয়ে আমাদের কিছু করার নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ◈ ‘কিছু ভালো লাগে না’ গ্রুপ দেশের নামে দুর্নাম রটায়: প্রধানমন্ত্রী ◈ বিদেশি ঋণের সুদ পরিশোধে কিছুটা চাপে আছে দেশের অর্থনীতি: অর্থমন্ত্রী ◈ সমালোচনা হবেই, এটা দেখাটা জরুরি না: নান্নু ◈ প্রতিবেশীদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখে ‘সামুদ্রিক সম্পদ’ আহরণ করুন: প্রধানমন্ত্রী ◈ ২০০ ইউনিটের বেশি ব্যবহার করলে বিদ্যুতের দাম ৫ শতাংশ বাড়বে, ১ মার্চ থেকে কার্যকর ◈ ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় রাশিয়ার ‘৬০ সেনা নিহত’ ◈ দোষী প্রমাণিত হলে অবহেলাকারী ও চিকিৎসকদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী  ◈ খুলনাকে ৬৫ রানে হারিয়ে প্লে-অফে চট্টগ্রাম

প্রকাশিত : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ০৪:২২ দুপুর
আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১১:৪৭ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

কথিত বিকাশ কর্মকর্তার ফাঁদে অভিনেত্রী দিঘী, খোয়া যাওয়া টাকা উদ্ধার

সুজন কৈরী: [২] অভিযোগ পেয়ে খোয়া যাওয়া টাকা উদ্ধার করে চিত্রনায়িকা প্রার্থনা ফারদিন দীঘিকে ফিরিয়ে দিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ।

[৩] সোমবার দুপুরে রাজধানীর মিন্টো রোডে গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে গিয়ে ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (গোয়েন্দা) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদের হাত থেকে উদ্ধার হওয়া টাকা বুঝে নিয়েছেন এই শিল্পী। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন তার বাবা অভিনেতা সুব্রত চক্রবর্তী এবং মামা ভিক্টর।

[৪] অতিরিক্ত কমিশনার হারুন অর রশীদ বলেন, গত শনিবার দীঘির মোবাইলে একটি অপরিচিত নম্বর থেকে কল আসে।ওই ব্যক্তি নিজেকে বিকাশ অফিসের কর্মী দাবি করেন। বিকাশ একাউন্ট ব্লক হওয়ার তথ্য জানিয়ে ঠিক করে দেওয়ার নামে দীঘির কাছে একটি ওটিপি নম্বর চাইলে সরল মনে সেটা দিয়ে দেন অভিনেত্রী। এর কিছুক্ষণ পরই বিকাশ একাউন্টের ব্যালেন্স চেক করলে দীঘি দেখতে পান, তার একাউন্ট থেকে এক লাখ ৬২ হাজার টাকা উধাও। পরে তিনি শেরে-বাংলা নগর থানা ও ডিবিতে অভিযোগ করেন।

[৫] মামলার প্রেক্ষিতে রাজধানীর মিরপুর এলাকায় দুই প্রতারকে গ্রেপ্তার করা হয়। উদ্ধার হয় হাতিয়ে নেয়া টাকা। 

[৬] হারুন আরও বলেন, একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের সক্রিয় সদস্যরা ভুয়া রেজিস্ট্রেশন করা বা ব্যক্তির অজান্তে রেজিস্ট্রেশন করা সিম ব্যবহার করে। সিমগুলো দিয়ে বিকাশ/নগদ কাস্টমার কেয়ারের প্রতিনিধিসহ বিভিন্ন পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন কৌশলে টার্গেট ব্যক্তিকে কল করে তার বিশ্বাস অর্জন করে। এরপর বিভিন্ন কথা বলার পর অবৈধভাবে টার্গেট ব্যক্তির বিকাশ নম্বরে লগইন করার জন্য তার নম্বরে ওটিপি পাঠিয়ে দেয় এবং টার্গেটকে তার মোবাইলে আসা ওটিপি বলার জন্য অনুরোধ করে। নায়িকা দিঘী সরল বিশ্বাসে এবং তার বিকাশ/নগদ একাউন্ট সচল করা বা অন্য কোনো আশায় তার মোবাইলে আসা ওটিটি বলে দেয়। 

[৭] এরপর প্রতারক ভুক্তভোগীর একাউন্টে লগইন করে এবং একাউন্টে থাকা টাকা তাদের কাছে থাকা ভুয়া নামে বিকাশ/নগদ রেজিস্ট্রেশন করা নম্বর দিয়ে তুলে নেয়। পরবর্তীতে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ওই টাকা নগদ উত্তোলন করে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে ফাঁকি দেওয়ার চেষ্টা করে। এভাবে দেশের অসংখ্য সাধারণ জনগণ প্রতারণার শিকার হচ্ছে। এ ঘটনার সঙ্গে গ্রেপ্তার আসামিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন। 

[৫] ডিবি কার্যালয় থেকে বের হয়ে দীঘি সাংবাদিকদের বলেন, বিকাশের নির্দিষ্ট নম্বর থেকে একটি কল আসে। আমার বিকাশ নম্বর বন্ধ করে দেয়ায় আমি ওই কলে অনেকক্ষণ ধরেই কথা বলি। এক সময় সে আমার ওটিপি নম্বর চায়। আমি ভেবেছিলাম, পিন নম্বর না দিলে সে আমার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করতে পারবে না। 

[৬] দীঘি আরও বলেন, আমি শুটিংয়ের কাজে ও স্ক্রিপ্ট নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম। তাই মাথা তেমন কাজ করেনি। এরপর দেখি অ্যাকাউন্ট থেকে দেড় লাখ টাকা নেই। প্রতারণাকারীকে আমার পরিচয় দিয়েছিলাম। সম্পাদনা: সমর চক্রবর্তী

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়