শিরোনাম
◈ বর্ধিত ভাড়ায় ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু ◈ বাড়ছে না শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ◈ মা হিসেবে পূর্ণ অভিভাবকত্ব পেয়ে দেশের ইতিহাসে নাম লেখালেন অভিনেত্রী বাঁধন ◈ হিটস্ট্রোকে আরও চারজনের মৃত্যু, তাপপ্রবাহে পুড়ছে ৬ জেলা ◈ তীব্র গরম ও পানি সংকটে রাজধানীবাসী ◈ আরও তিন মামলায় জামিন পেলেন মামুনুল হক ◈ সাজেকে ট্রাক খাদে পড়ে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯ ◈ মিয়ানমার থেকে দেশে ফিরেছেন ১৭৩ বাংলাদেশি, বৃহস্পতিবার যাবে ২৮৮ বিজিপিসদস্য   ◈ রাজধানীতে পথচারীদের সুপেয় পানি সরবরাহ করছেন ডিএমপি ও ফায়ার সার্ভিস  ◈ তাপপ্রবাহে উচ্চ স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে শিশুরা,  বাড়তি সতর্কতার পরামর্শ ইউনিসেফের

প্রকাশিত : ১৪ মার্চ, ২০২৪, ১০:০২ রাত
আপডেট : ১৪ মার্চ, ২০২৪, ১০:০২ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

সুন্দরবন বাঁচানোর আকুতি নিয়ে পশ্চিমবঙ্গে  আন্তর্জাতিক আর্ট ক্যাম্প অনুষ্ঠিত 

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রতি বছর বঙ্গোপসাগরের তীরে অবস্থিত সুন্দরবনের উপর দিয়ে ঝড়-জলোচ্ছাস বয়ে যায়। ফলে এই বন তার নিজস্বতা হারিয়ে ফেলছে। এই বনের বৃক্ষের সাথে সাথে প্রাণীকূলও তার বাসস্থান হারাচ্ছে । তাই এই বিষয়টিকে স্লোগানে  রেখে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের চব্বিশ পরগনার  বকখালিতে সুন্দরবন আর্ট একাডেমী দ্বিতীয়বারের মত এক আন্তর্জাতিক আর্ট ক্যাম্পের আয়োজন করে। 

এই ক্যাম্পে বাংলাদেশ, ভারত ও নেপালের প্রবীণ ও নবীন মিলে ৫২ জন শিল্পী অংশগ্রহণ করেন।  অতিথি হিসাবে এই ক্যাম্প উদ্বোধন করেন বাংলাদেশের চিত্রশিল্পী নাজমুন নাহার রহমান,  বিশিষ্ট সাংবাদিক আলম হোসেন খান,  ভারতের  ভাস্কর্য শিল্পী বিমান নাগ, লেখিকা শম্পা নাগ, চিত্র শিল্পী সৌমিত্র মন্ডল, কিউরেটর কাজরী  ভট্টাচার্য এবং নেপালের চিত্র শিল্পী শ্যাম সুন্দর ইয়াদেব। গোটা ক্যাম্পের তত্ত্বাবধায়কের দায়িত্বে ছিলেন শিল্পী দেবরাজ বেরা। 

প্রদীপ প্রজ্জলনের মধ্য দিয়ে অতিথিরা ৬ মার্চ দুই দিনব্যাপী ক্যাম্প উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনের পর প্রথম দিন শিল্পীরা বঙ্গোপসাগরের তীরে অবস্থিত বকখালির সৈকতে ছবি আঁকেন। দ্বিতীয় দিনে বকখালিতে অবস্থিত জয়গুরু আবাসনের প্রাঙ্গণে শিল্পীরা সুন্দরবন ও তার প্রাণীদের নিয়ে ছবি আঁকেন। 

রাতে শিল্পীদের হাতে সুন্দরবন আর্ট একাডেমীর পক্ষ থেকে শিল্পীসম্মাননা তুলে দেওয়া হয়। পরে অংশগ্রহণকারী শিল্পীরা তাদের প্রতিভার সাক্ষর রাখেন এক মনমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে। শিশু শিল্পী অনুভব বেরার অনবদ্য আবৃত্তি মুগ্ধ করে সকলকে। সম্পাদনা: সালেহ্ বিপ্লব

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়