শিরোনাম
◈ আওয়ামী লীগ সরকার অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে সমুন্নত রাখতে বদ্ধপরিকর : প্রধানমন্ত্রী  ◈ মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের ব্রিফিংয়ে বিএনপির বেতনভুক্ত কেউ আছে: ড. হাছান মাহমুদ ◈ গাজীপুরে যুবককে গুলি করে হত্যা ◈ বাংলাদেশকে হারিয়ে ইতিহাস গড়ল যুক্তরাষ্ট্র ◈ সংবাদপত্রকে জনগুরুত্বপূর্ণ শিল্প ঘোষণা ও কর কমানোর দাবি ◈ সচিব পদে পদোন্নতি ও রদবদল ◈ হায়দরাবাদকে ৮ উইকেটে হারিয়ে ফাইনালে কলকাতা ◈ নেতানিয়াহু ও সিনওয়ারার বিরুদ্ধে আইসিসি’র গ্রেপ্তারি আবেদনে ফ্রান্সের সমর্থন  ◈ বাংলাদেশি পণ্যের জন্য ডিউটি ফ্রি, কোটা ফ্রি সুবিধা অব্যাহত রাখবে অস্ট্রেলিয়া  ◈ বিএনপিসহ টিআইবির অপপ্রচারে ভোটার উপস্থিতি কমেছে: ওবায়দুল কাদের 

প্রকাশিত : ২১ মার্চ, ২০২৩, ০২:০৭ দুপুর
আপডেট : ২১ মার্চ, ২০২৩, ০৭:০২ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

একই পদ্ধতি অনুসরণে সব মসজিদে খতম তারাবিহ পড়ার আহ্বান

ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ

মাজহারুল ইসলাম: ইসলামিক ফাউন্ডেশন মঙ্গলবার (২১ মার্চ) সকালে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ আহ্বান জানায়।

ওই বিজ্ঞপ্তি বলা হয়, রমজানের প্রথম ছয় দিনে দেড় পারা করে নয় পারা এবং বাকি ২১ দিনে এক পারা করে ২১ পারা তিলাওয়াত করলে ২৭ রমজান রাতে অর্থাৎ পবিত্র শবে কদরে কোরআন খতম করা সম্ভব। এ অবস্থায় দেশের সব মসজিদে খতম তারাবিহ নামাজে প্রথম ছয় দিনে দেড় পারা করে ও পরবর্তী ২১ দিনে এক পারা করে তিলাওয়াতের মাধ্যমে পবিত্র শবে কদরে কোরআন খতমের জন্য ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে দেশের সব মসজিদের সম্মানিত খতিব, ইমাম, মসজিদ কমিটি, মুসল্লি এবং সংশ্লিষ্ট সবার কাছে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

রমজান মাসে দেশের প্রায় সব মসজিদে খতম তারাবিহ নামাজে পবিত্র কোরআনের নির্দিষ্ট পরিমাণ তিলাওয়াত করার রেওয়াজ চালু রয়েছে। তবে কোনো কোনো মসজিদে এর ভিন্নতাও পরিলক্ষিত হয়। এতে কাজে ব্যস্ত কিংবা বিভিন্নস্থানে যাতায়াতকারী মুসল্লিদের কোরআন খতমের ধারাবাহিকতা রক্ষা করা সম্ভব হয় না। এ অবস্থায় ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের মধ্যে একটি অতৃপ্তি ও মানসিক চাপ অনুভূত হয় এবং তারা কোরআন খতমের পূর্ণ সওয়াব থেকে বঞ্চিত হন।

এমআই/একে

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়