শিরোনাম
◈ ঢাকায় এসেছেন চীনের কমিউনিস্ট পার্টির মিনিস্টার লিউ জিয়ানচাও  ◈ রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে দেয়া হচ্ছে না: মির্জা ফখরুল ◈ নবনিযুক্ত সেনা প্রধানের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর ◈ বেগম খালেদা জিয়ার হৃদযন্ত্রে পেসমেকার বসানো হয়েছে  ◈ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নবনিযুক্ত সেনাবাহিনী প্রধানের সৌজন্য সাক্ষাৎ ◈ গ্যাসের উৎপাদন বৃদ্ধির পরিকল্পনা ও বাজেটে বরাদ্দ কমানো স্ববিরোধী: সিপিডি ◈ সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি, খুলছে পর্যটন কেন্দ্র ◈ পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের চিঠি স্বাধীন সাংবাদিকতার প্রতি হুমকি: বিজেসি  ◈ দেশের প্রতিটি অর্জনে নেতৃত্ব দিয়েছে আওয়ামী লীগ: প্রধানমন্ত্রী ◈ এনবিআর সদস্য মতিউরের বিরুদ্ধে তদন্তে দুদক

প্রকাশিত : ১৩ এপ্রিল, ২০২৪, ০৯:২৭ সকাল
আপডেট : ১৩ এপ্রিল, ২০২৪, ০৫:৩৫ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

ইরানি হামলার ভয়ে তটস্থ নেতানিয়াহু শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন 

সাজ্জাদুল ইসলাম: [২] সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে ইরানি কনস্যুলেটে ইসরায়েলের হামলার পর থেকে প্রতিশোধের হুমকি দিচ্ছে তেহরান। যেকোনো সময় পাল্টা হামলার মধ্য দিয়ে এ প্রতিশোধ নেওয়া হতে পারে এমন আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। ইসরায়েলের স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, এমন পরিস্থিতিতে দেশটির শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। সূত্র: বিবিসি

[৩] ১ এপ্রিল দামেস্কে ইরানের কনস্যুলেটে বিমান হামলা চালানো হয়। এতে ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয় কনস্যুলেটটি।নিহত হন ইরানের শীর্ষস্থানীয় কয়েকজন সামরিক কর্মকর্তা। এরপর দেশটির সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি বলেছেন, এই হামলার জন্য ইসরায়েলকে অবশ্যই শাস্তি পেতে হবে।

[৪] খামেনির হুমকির পর ইরান ও ইসরায়েল দুই দেশ ভ্রমণে নিজেদের নাগরিকদের সতর্ক করেছে যুক্তরাষ্ট্রসহ কয়েকটি দেশ। এ নিয়ে উদ্বিগ্ন ইসরায়েলের জনগণও। তবে সম্ভাব্য হামলার বিষয়ে তাদের প্রতি কোনো নির্দেশনা জারি করেনি ইসরায়েল সরকার। ধারণা করা হচ্ছে, প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়োভ গ্যালান্ট ও বিরোধী নেতা বেনি গান্তসের মতো শীর্ষস্থানীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন নেতানিয়াহু। 

[৫] যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকজন কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যম সিবিএসকে আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেছেন, শিগগিরই বড় ধরনের হামলা চালাতে পারে ইরান। এ হামলায় শতাধিক ড্রোন ও কয়েক ডজন ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করা হতে পারে। ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহারের সম্ভাবনাও রয়েছে। ইসরায়েলের সামরিক স্থাপনাগুলোতে এ হামলা হতে পারে। তা ঠেকানো ইসরায়েলের জন্য বড় ‘চ্যালেঞ্জের’ বিষয় হবে।

[৬] গত শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের মুখপাত্র জন কারবি বলেছেন, ইরানের এই হুমকি ‘বিশ্বাসযোগ্য’। আর যুক্তরাষ্ট্র ‘যথাসম্ভব তা পর্যবেক্ষণ করছে’। দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এরই মধ্যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেছেন, ইরান হামলা চালালে ইসরায়েলকে ‘লৌহবর্মের’ মতো সমর্থন দিয়ে যাবেন তারা। তিনি বলেন, ইসরায়েলে ইরানি হামলা হবেই, তা শিগগিরই হোক বা বিলম্বে হোক। সম্পাদনা: রাশিদ  

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়