শিরোনাম
◈ সাংবাদিকরা চাষাবাদ করছেন কি না, দেখার দায়িত্ব পেলেন শাইখ সিরাজ ◈ মালদ্বীপে আবার জাহাজ পাঠাল চীন  ◈ কারামুক্ত বিএনপি নেতা আলালের স্বাস্থ্যের খোঁজ নিলেন মঈন খান ◈ গাজায় যুদ্ধ নয়, গণহত্যা চলছে: প্রধানমন্ত্রী ◈ শুক্রবার বিশ্বে বাতাস দূষণের তালিকায় ঢাকা ছিল সপ্তম ◈ মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে নির্বাচন  নিয়ে কেউ প্রশ্ন করেনি: প্রধানমন্ত্রী ◈ লোহিত সাগরে হামলায় ব্যবহার করা হবে সাবমেরিন অস্ত্র: হুথি নেতা  ◈ ২১ বলে সেঞ্চুরি করে বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন আসজাদ ◈ যারা সরকার উৎখাত করতে চায়, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি তাদেরই কারসাজি: প্রধানমন্ত্রী ◈ খতনা করাতে গিয়ে শিশুর মৃত্যু: ৩ চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বিএমডিসিকে নির্দেশ

প্রকাশিত : ২৫ জানুয়ারী, ২০২৩, ১২:২৬ রাত
আপডেট : ২৫ জানুয়ারী, ২০২৩, ১২:২৬ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

নারীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে চেয়ারম্যান বরখাস্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক: যৌন হয়রানির অভিযোগে নওগাঁর বদলগাছি উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মাসুদ রানাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এ বিষয়ে সোমবার স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলপনা ইয়াসমিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, মথুরাপুর ইউপির চেয়ারম্যান মাসুদ রানার বিরুদ্ধে গত বছরের ১৩ জুন এক নারী যৌন হয়রানি ও অনৈতিক প্রস্তাবের অভিযোগ তুলে জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেন। ওই অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা প্রশাসন তদন্ত শুরু করে। তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় জেলা প্রশাসক ওই ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট দপ্তরে সুপারিশ করেন। ওই সুপারিশ অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে বদলগাছির উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আলপনা ইয়াসমিন বলেন, চেয়ারম্যান মাসুদ রানার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ স্থানীয় প্রশাসন গঠিত তদন্ত কমিটির কাছে সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে। এ কারণে ওই ইউপি চেয়ারম্যানকে তার পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে স্থানীয় সরকার বিভাগ। এ সংক্রান্ত একটি চিঠি সোমবার সন্ধ্যায় আমাদের কাছে পৌঁছেছে। এখন যিনি প্যানেল চেয়ারম্যান রয়েছেন, তিনি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন।

ওই নারীর করা লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, মাসুদ রানা ২০২১ সালে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনের আগে থেকে ওই নারীকে বিভিন্নভাবে যৌন হয়রানি করে আসছিলেন। তিনি মোবাইল ফোনে এবং বেশ কিছু চিঠির মাধ্যমে তাকে অনৈতিক সম্পর্কের প্রস্তাব দিতেন। ওই প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর মাসুদ রানা ওই নারীর মোবাইল ফোন কেড়ে নেন এবং তার ফোনে থাকা বেশ কিছু গোপন তথ্য মুছে ফেলেন।

এসব কারণে ওই নারী মথুরাপুর ইউপির চেয়ারম্যান মাসুদ রানার বিরুদ্ধে গত বছরের ১৩ জুন জেলা প্রশাসক স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দেন।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়