শিরোনাম
◈ ভোটচুরির সুযোগ পাচ্ছে না বলে নির্বাচন নিয়ে বিএনপির শঙ্কা: প্রধানমন্ত্রী  ◈ জলবায়ু ইস্যুতে ধনী দেশগুলোর অবদান দুঃখজনক: প্রধানমন্ত্রী ◈ জাতিসংঘ ও বাংলাদেশের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতার প্রশংসা করলেন গুতেরেস  ◈ বিপর্যস্ত রুশ বাহিনী, বিপজ্জনক দিকে মোড় নিচ্ছে ইউক্রেন যুদ্ধ ◈ কৃষ্ণা-শামসুন্নাহারকে টাকা, সানজিদাকে আইফোন দিল বাফুফে  ◈ শাওনের মৃত্যুতে গণঅভ্যুত্থান ঘটেছে: মির্জা ফখরুল ◈ বিশ্ববাজারে দুই বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন দামে স্বর্ণ ◈ যেভাবে পাওয়া যাবে কাতার বিশ্বকাপের ‘হায়া কার্ড’ ◈ নিজ গ্রামে উষ্ণ অভ্যর্থনায় অভিভূত সাবিনা ◈ বিএনপি লাশ ফেলে আন্দোলন জমানোর অশুভ খেলায় মেতে উঠেছে; কাদের

প্রকাশিত : ২৪ নভেম্বর, ২০২১, ০৯:১০ রাত
আপডেট : ২৪ নভেম্বর, ২০২১, ০৯:১০ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

‘গানের শব্দে’ ৬৩ মুরগির মৃত্যু

সাজিয়া আক্তার: ভারতের ওডিশা রাজ্যে ৬৩টি মুরগির মৃত্যুর খবর এখন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের সংবাদ শিরোনাম। গত রোববার মধ্যরাতে পূর্বাঞ্চলীয় এই রাজ্যে একটি পোলট্রি খামারে মুরগিগুলো মারা যায়। কিন্তু কেন এই মৃত্যু নিয়ে এত আলোচনা। প্রথম আলো

বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, ওই সময় সেখানে একটি বিয়ের অনুষ্ঠান হয়েছিল। এ উপলক্ষে তারা উচ্চ শব্দে গান, আতশবাজি ও নৃত্যের সঙ্গে সঙ্গে ব্যান্ড পার্টির আয়োজন করে। আর এতেই মুরগিগুলো মারা গেছে বলে অভিযোগ করেছেন খামারটির মালিক রণজিৎ কুমার পারিদা। পারিদাকে এক পশুচিকিৎসক বলেছেন, মুরগিগুলোর হৃদ্‌যন্ত্র বন্ধ হয়ে মারা গেছে।

রণজিৎ কুমার পারিদা মুরগিগুলোর জন্য ক্ষতিপূরণ চেয়েছেন বিয়ের আয়োজকপক্ষের কাছে। কিন্তু তারা তা দিতে অস্বীকৃতি জানায়। পরে পারিদা এ নিয়ে থানা-পুলিশে রীতিমতো অভিযোগও করেন।

পারিদা বলেন, ঘটনার সময় মুরগিগুলো আতঙ্কিত হয়ে পড়ায় তিনি ব্যান্ড অপারেটরকে শব্দের মাত্রা কমানোর অনুরোধ করেন। কিন্তু তারা তাতে কান দেয়নি। উল্টো তাঁর সঙ্গে আয়োজকপক্ষের লোকজন উত্তেজিত হয়ে কথা বলেন।

এ বিষয়ে প্রাণী গবেষক অধ্যাপক সূর্যকান্ত মিশ্র হিন্দুস্তান টাইমসকে বলেন, উচ্চ শব্দ পাখিদের হৃদ্‌রোগের ঝুঁকি বাড়ায়। তিনি বলেন, মুরগির জীবন চলে ‘সার্কাডিয়ান’ ছন্দে।

অর্থাৎ তাদের জীবন নিয়ন্ত্রিত হয় দিনের আলো ও রাতের আঁধারের চক্রকে কেন্দ্র করে। ফলে উচ্চ শব্দের গানে হঠাৎ উত্তেজনা বা চাপ তৈরি হয়ে তাদের জৈবিক ঘড়িকে ব্যাহত করতে পারে।

তবে পরে দুই পক্ষ এই ঘটনায় একটি সমঝোতায় পৌঁছাতে পেরেছে। সেখানকার পুলিশ কর্মকর্তা ধ্রুপদী দাস বলেন, পুলিশের উদ্যোগে দুই পক্ষ সমঝোতায় পৌঁছাতে পেরেছে। পারিদা থানা থেকে তাঁর অভিযোগ তুলে নিয়েছেন।

 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়