প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] রাজশাহীতে পুলিশের তৈরি পাকাবাড়ী পাচ্ছে ভিক্ষুক হাসিনা

মোফাজ্জল হোসেন, দুর্গাপুর প্রতিনিধি: [২] রাজশাহীর দূর্গাপুর উপজেলার ভিক্ষুক হাসিনা দীর্ঘদিন ধরেই একটি পাকাবাড়ীর স্বপ্ন দেখেছিল। নিজের একখানা বাড়ী থাকলেই মেয়েকে বিয়ে দিতে পারবেন ভাল জায়গায়। পুলিশের সহযোগিতায় হাসিনা বেগমের সেই স্বপ্ন এবার পূরুণ হতে যাচ্ছে। তৈরি হচ্ছে মা মেয়ের জন্য দুই কক্ষ বিশিষ্ট অত্যাধুনিক একটি পাকাবাড়ী। স্বামী পরিত্যক্তা হাসিনা এতোদিন স্থানীয় এক মুক্তিযোদ্ধার বাড়ীর বারান্দায় থাকতেন মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে।

[৩] হাসিনার বাড়ী রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের বাজুখলসী গ্রামে। সারাদিন ভিক্ষা করে চলে দুই মা মেয়ের সংসার। পাকাবাড়ীর কাজ শুরু হওয়ায় খুশিতে আত্মহারা হাসিনা ও তার মেয়ে। রোববার ঘর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন, রাজশাহী জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( প্রশাসন ও অপরাধ) আবু সালেহ মো. আশরাফুল আলম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর ইফতেখায়ের আলম।

[৪] হাসিনা বেগম বলেন, আমার স্বামী নেই। তাই ঘরবাড়ী নেই। এক মুক্তিযোদ্ধার বাড়ীর বারান্দায় থাকি। ওই মুক্তিযোদ্ধা আমাকে দুই শতক জমিও দান করেছেন। ওখানেই পুলিশের পক্ষ থেকে আমার জন্য পাকাবাড়ী তৈরি হচ্ছে। এবার আমার মেয়ের বিয়েও হবে। হাসিনা বলেন, পাড়ায় পাড়ায় ভিক্ষা করি। মানুষের যেটুক সাহায্য সহযোগিতা পাই তা খেয়ে পরেই শেষ হয়ে যায়। আমার পক্ষে বাড়ি করা সম্ভব ছিল না। পুলিশসহ যারা আমাকে বাড়ী তৈরি করে দিচ্ছেন তাদের ধন্যবাদও দেন হাসিনা।

[৫] স্থানীয় জয়নগর ইউপি চেয়ারম্যান সমসের আলী বলেন, অনেক কষ্টে জীবন কাটছিল হাসিনার। তার স্বামী নেই। তার একটি বিবাহযোগ্য মেয়ে আছে। ভিক্ষা করে জীবিকা নির্বাহ করেন।

[৬] দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাশমত আলী বলেন, মুজিব বর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অঙ্গীকার হতদরিদ্রদের আশ্রয়ন প্রকল্প হতে বাংলাদেশ পুলিশের পক্ষে দেশের প্রতিটি থানায় একটি করে অত্যাধুনিক বসবাস যোগ্য ঘর নির্মাণের সিদ্ধান্ত হয়। তারই ধারাবাহিকতায় উপজেলার বাজুখলসী গ্রামের ভিক্ষুক হাসিনা বেগমকে পাকাবাড়ী দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। সম্পাদনা: হ্যাপি

সর্বাধিক পঠিত