প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার ও জ্বালানি তেলের দাম কমানোর দাবি যাত্রী কল্যাণ সমিতির

মাসুদ আলম : [২] শনিবার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনী মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন সংগঠনের মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী বলেন, লকডাউনসহ নানা কারণে দেশের ৭৭ ভাগ মানুষের আয় কমেছে। ফলে ৩ কোটি ২৪ লাখ মানুষ নতুন করে দরিদ্র। কষ্টে থাকা সাধারণ মানুষজন দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে যখন দিশেহারা, ঠিক তখনই জ্বালানি তেলের দাম একলাফে ২৩ শতাংশ বাড়ার ফলে মানুষের যাতায়াত, পণ্য পরিবহন, খাদ্যপণ্য ও কৃষিজ উৎপাদনসহ সামগ্রিক ব্যয় আরও কয়েকগুণ বেড়ে যাবে। এতে চরমভাবে মুদ্রাস্ফীতি বাড়বে। নতুন করে আরও কয়েক কোটি মানুষ দারিদ্র্যতার ঝুঁকিতে পড়ার শঙ্কা রয়েছে।

[৩] তিনি আরও বলেন, বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম কম থাকায় সরকার উচ্চহারে তেল বিক্রি করে গত ৬ বছরে ধরে একচেটিয়া মুনাফা করেছে। এতে সরকার প্রায় ৬৩ হাজার কোটি টাকার বেশি আয় করেছে। মাত্র ৫ মাস ধরে জ্বালানির দাম বৃদ্ধির কারণে দেশের মানুষের এই কঠিন দুঃসময়ে একলাফে ২৩ শতাংশ তেলের মূল্য বৃদ্ধি করা আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত। [৪] তিনি বলেন, ৬ লাখ কোটি টাকার জাতীয় বাজেটে জ্বালানি তেলের মূল্য না বাড়িয়েও ৬ হাজার কোটি টাকা বছরে ভর্তুকি দেওয়ার সক্ষমতা সরকারের রয়েছে। তাই অনতিবিলম্বে জ্বালানি তেলের বর্ধিত দাম প্রত্যাহার করে বর্তমান পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার করাতে হবে।

সর্বাধিক পঠিত